ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে নিম্নমানের খাতায় পরীক্ষা!


ঢাবি টাইমস
Published: 2018-01-13 19:36:45 BdST | Updated: 2018-12-10 15:59:43 BdST

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের সমাপনী, মিডটার্মসহ অন্যান্য পরীক্ষায় নিম্নমানের খাতা সরবরাহ করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্র-ছাত্রীরা পরীক্ষায় এমন নিম্নমানের খাতা পেয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ অভিযোগের বিষয়টি স্বীকার করেছেন। তারা বলেছেন, খাতার মান নিয়ে তারাও সন্তুষ্ট নন।

জানা যায়, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ প্রতিবছর সরকারি প্রতিষ্ঠান কর্ণফুলী পেপারস মিলস লিমিটেড হতে খাতা ক্রয় করে। সর্বশেষ কর্তৃপক্ষ ২০১৬-১৭ বর্ষে ১৬৫০ টাকা মূল্য দিয়ে প্রতি রিম খাতা কিনেছে।

পরীক্ষায় শিক্ষার্থীরা বরাবরই ভালো খাতা পায়। ২০১৭ সাল থেকে বর্তমান সময় পর্যন্ত পরীক্ষা দিতে গিয়ে অসংখ্য ছাত্র-ছাত্রী নিম্নমানের খাতা পান বলে জানা গেছে। শিক্ষার্থীরা জানান, খাতা পেয়ে কোনো কোনো শিক্ষার্থী প্রথমে মনে করেন যে হয়তো একমাত্র তার খাতাটিই খারাপ হয়েছে; কিন্তু সেটা পরিবর্তন করে অন্য খাতা নিয়ে এবং অন্য শিক্ষার্থীদের খাতা দেখে উপলব্ধি করেন যে- সব খাতারই একই অবস্থা।

এ ব্যাপারে মাসুদুর রহমান বাবু নামে এক ছাত্র বলেন, আগে মিডটার্ম পরীক্ষাতে খাতা পেতাম কর্ণফুলী আর এখন ফাইনাল পরীক্ষায় খাতা পাচ্ছি নিউজপ্রিন্ট। মাস্টার্সে পরীক্ষা দিতে গিয়ে পেলাম নিউজপ্রিন্ট খাতা, তাও আবার দুই বার পরিবর্তন করে চারটা ছিদ্রযুক্ত পাতায় পরীক্ষা দিতে হলো।

তাসলিমা রিমা নামে এক ছাত্রী বলেন, খাতাগুলো অনেক পাতলা আর কালো। এমন বাজে খাতায় অ্যাকাডেমিক বয়সে কখনো পাইনি, পরীক্ষা দিইনি।

এ বিষয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মো. বাহালুক হক চৌধুরীর সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি ডেপুটি রেজিস্ট্রার স্টোর মো. ইদ্রীস আলীর কাছে পাঠান। পরীক্ষায় নিম্নমানের খাতা সরবরাহের বিষয়ে ইদ্রীস আলী বলেন, আমরা কর্ণফুলি পেপারস লিমিটেড থেকে খাতা নেই। খাতা ভালো-খারাপ বুঝি না। খাতা খারাপ হলে সরকারি মিল দায়ী।

খাতা সম্পর্কিত নানা বিষয় বর্ণনা করার পর খাতার নিম্নমান স্বীকার করে তিনি বলেন, আমরাও লক্ষ্য করেছি খাতার মান কিছুটা খারাপ। এজন্য আমরা কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ করেছি। তারা পরবর্তীতে আমাদের ভালো খাতা দিবে বলে বলেছে।

কর্ণফুলী পেপারস লিমিটেড-এর চিফ কেমিস্ট সোহরাব খাতার নিম্নমানের কথা স্বীকার করে বলেন, আমাদের মিল বন্ধ থাকার জন্য একটু সমস্যা হয়েছে। পরে এই সমস্যাগুলো থাকবে না। কর্ণফুলি পেপারস লিমিটেড-এর জিএম আনিসুজ্জামান বলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে দীর্ঘদিন ধরে খাতা দেয়। কিছু খাতা হয়তো খারাপ হবে। ভবিষ্যতে ভালো মানের খাতা দেওয়া হবে। বিষয়টি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. আখতারুজ্জামানকে অবহিত করলে তিনি বলেন, বিষয়টি দেখবো, পরবর্তীতে ভালো মানের খাতা যাতে আসে সে বিষয়ে ব্যবস্থা নিব।----ইত্তেফাক

বিডিবিএস 

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।