ঢাবি ছাত্রের লাশ উদ্ধার, প্রক্টরের দুঃখ প্রকাশ


ঢাবি টাইমস
Published: 2018-02-15 05:38:52 BdST | Updated: 2018-08-15 09:35:24 BdST

রাজধানীর হাজারীবাগ এলাকায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের এক ছাত্রের লাশ পাওয়া গেছে; যিনি হতাশায় ভুগছিলেন বলে তার বন্ধুরা জানিয়েছে। নিহত তরুণ হোসেন ফিন্যান্স বিভাগের তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী ছিলেন; থাকতেন বিশ্ববিদ্যালয়ের স্যার এ এফ রহমান হলে।

তরুণের অকালমৃত্যুতে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর এ কে এম গোলাম রব্বানী দুঃখ প্রকাশ করেছেন।

তিনি বলেন, “বিষয়টি অত্যন্ত দুঃখজনক। পুলিশ ওর পকেটে অন্যান্য কাগজপত্রের সাথে বিশ্ববিদ্যালয়ের আইডি কার্ড পেয়েছে। পুলিশ আমাদের সাথে যোগাযোগ করলে আমরা তার রেকর্ড থেকে ঠিকানা বের করে পরিবারকে জানিয়েছি।

“পুলিশ ঘটনা তদন্ত করছে। তরুণের পরিবারকে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে যেকোনো বিষয়ে আমরা সহায়তা করব।”

পুলিশ ঘটনা তদন্ত করছে বলে জানিয়েছেন হাজারীবাগ থানার ওসি মো. ইকরাম আলী মিয়া। 

তিনি বলেন, বুধবার দুপুরে হাজারীবাগের সেকশন এলাকায় বেড়িবাঁধের কলার আড়তের পাশে নির্মাণাধীন একটি মসজিদের পাশ থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়।

“আমরা বেলা ৩টার দিকে খবর পেয়ে সেখানে যাই। সম্ভবত মসজিদের ছাদ বা থার্ড ফ্লোর থেকে পড়ে মৃত্যু হয়েছে।”

স্যার এ এফ রহমান হলের তরুণের সঙ্গে একই রুমে থাকতেন ইতিহাস বিভাগের তৃতীয় বর্ষের ছাত্র সাইফুল ইসলাম খান।

তিনি বলেন, “তরুণ খুবই ইন্ট্রোভার্ট টাইপের একটা ছেলে ছিল। সব সময় একটা হতাশার মধ্যে থাকত। তেমন কারো সঙ্গে মিশত না। ছোটবেলা ওর মা মারা গেছে। পড়াশুনা নিয়েও যথেষ্ট হতাশা কাজ করত ওর মধ্যে।”

তরুণ জিগাতলায় একটি বাসায় টিউশনি করাতেন। তিনি হাজারীবাগে কেন গিয়েছিলেন সে বিষয়ে তার বন্ধুরা কিছু বলতে পারেননি।

এ এফ রহমান হল শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি হাফিজুর রহমান বলেন, তার সঙ্গে তরুণের ‘তেমন একটা’ পরিচয় ছিল না।

“ওর বন্ধুদের সঙ্গে কথা বলে যতটুকু শুনেছি ও খুব ইন্ট্রোভার্ট ছিল। ঘটনা শোনার পরপরই ওর বন্ধুদের বলেছি হাজারীবাগ যেতে। ওর পরিবারকে পুলিশ খবর দিয়েছে ”

বিডিবিএস 

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।