ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে লাঞ্চনার শিকার ছাত্রী


ঢাবি টাইমস
Published: 2018-03-15 14:44:49 BdST | Updated: 2018-09-25 02:23:13 BdST

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মার্কেটিং বিভাগের ৪ র্থ বর্ষের এক ছাত্রীর বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে যৌন হয়রানির শিকার হওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে । উদয়ন স্কুলের সামনে এ ঘটনা ঘটে। ভুক্তভোগী শিক্ষার্থী সুবর্ণা অাহমেদ নামের তার ফেসবুকে ঘটনার বিবরণ দেন । তার পোস্টটি হুবহু তুলে ধরা হল,

"সেই প্রথম থেকেই নিজের ক্যাম্পাসটাকে নিজের জন্য নিরাপদ নিশ্চিন্ত মনে করতাম। আজ সকালে ক্লাস শেষে রিকশা নেই বাসায় ফিরার জন্য ৯:৩০ এর দিকে। উদয়ন স্কুলের একটু সামনে আসতে রিকশা নষ্ট হয়ে গেলে আমি নেমে হাটা শুরু করি। তখন ৩টা ছেলে সাথে সাথে হাটা শুরু করে, স্বাধীনতা সংগ্রামের কাছে যেতেই একজন হাত চেপে ধরে। হাতটা সরিয়ে জিজ্ঞেস করি প্রবলেম কি? তখনই অন্য একজন পিছন থেকে এসে চুলের ঘ্রাণ নিচ্ছে। অবস্থা খারাপ হচ্ছে বুঝতে পেরে জোরে হেটে সরে যাওয়ার চেষ্টা করতেই দুইজন সামনে এসে রাস্তা আটকিয়ে ধরলো। অশ্রাব্য ভাষায় যাতা বলে যাচ্ছিল। চিৎকার করছিলাম, ভয়ে গলা শুকিয়ে আসছিলো। সাধারণত এই সময়টায় স্কুলের দিকে প্রচুর লোক থাকলেও আজকে তেমন কেউ ছিলো না। রাস্তা দিয়ে ৩/৪ জন এর মত গেলেও কেউ এক পা এগিয়ে আসেনি। এর মধ্যে একজন ছুরি দিয়ে বাম হাতে আঘাত করে। একজন বলতেছে গাড়ি/সিএনজি কিছু ডেকে আন, উঠিয়ে নিয়ে যাই। মাথায় কিচ্ছু কাজ করছিলো না। তখনি ব্যাগ থেকে কোনমতে 'কলম' বের করে ক্যাপ খুলে যত শক্তি ছিল শরীরে তা দিয়ে এলোপাথাড়ি ৩টা জানোয়ার কেই আঘাত করি আমার চিৎকার শুনে কিচ্ছুক্ষণ পর দুইটা রিকশাওয়ালা এসে হেল্প করে।

তিনি আরও লিখেছেন, আমার নিজের ক্যাম্পাসে আমি অনিরাপদ। রাগে, ক্ষোভে মরে যেতে ইচ্ছে করছে। আজকে ক্যাম্পাসে কোন প্রোগ্রামও ছিল না যে বহিরাগতরা আসবে। ফুলার রোডে বহিরাগত কিছু বখাটে নিয়মিত চলাচল করেই, প্রশাসন এই বেপারে তেমন কোন ব্যবস্থা কখনোই নেয়নি। আর দিনের বেলা সকালে এরকম সময়ে এইভাবে ইভটিজিং আর আক্রমনের স্বীকার হব কল্পনাও করিনি। প্রশাসন কবে নিজেদের ক্যাম্পাসের মেয়েদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করবে? আর কতো ১লা বৈশাখ,১লা ফাল্গুন, ৭ই মার্চ গেলে, আর কত মেয়ে নির্যাতিত হলে তাদের হুশ হবে? প্রোক্টর অফিসে অভিযোগ করে এসেছি। কিন্তু অবস্থা দেখে আমার কাছে কিছু হবে বলেও মনে হয়নি। দেশটা দিন দিন জানোয়ার দিয়ে ভরে যাচ্ছে।এরা জানোয়ারেরও অধম। তারপরও দেশের সর্বোচ্চ বিদ্যাপীঠে এরা ঘুড়তে দ্বিধা বোধ করে না। যে রাস্তায় প্রতিদিন যাওয়া আশা করছি, আজকের পর আমি হয়ত আর কোনদিনই তাতে নির্দ্বিধায় চলতে পারব না।

লাঞ্চিত ছাত্রীর স্ট্যাটাস 

বিদিবিএস 

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।