ছাত্রী উত্যক্তের প্রতিবাদ করায় শিক্ষার্থীকে ছুরিকাঘাত


টাইমস প্রতিবেদক
Published: 2018-05-17 12:36:06 BdST | Updated: 2018-06-20 12:00:16 BdST

বান্ধবীকে উত্ত্যক্তের প্রতিবাদ করায় রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) এক শিক্ষার্থী ছুরিকাঘাতে আহত হয়েছেন। বিশ্ববিদ্যালয়েরই এক ছাত্রলীগ কর্মী তাঁকে ছুরিকাঘাত করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে। বুধবার (১৬ মে) রাতে বিশ্ববিদ্যালয়ের তৃতীয় বিজ্ঞান ভবনের পেছনে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় একজনকে আটক করেছে পুলিশ।

আহত শিক্ষার্থী মো. সাইফুল ইসলাম হৃদয় বিশ্ববিদ্যালয়ের মার্কেটিং বিভাগের ২০১২-১৩ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী। তিনি সম্প্রতি মাস্টার্স শেষ করেছেন। তাঁকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

এ ঘটনায় সন্দেহভাজন ছাত্রলীগ কর্মী মো. হামজা বিশ্ববিদ্যালয়ের গণিত বিভাগের প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী। তিনি মারধরের বিষয়টি অস্বীকার করেন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, তৃতীয় বিজ্ঞান ভবনের সামনে হৃদয় ও তাঁর বান্ধবী বসেছিলেন। এ সময় হামজাসহ কয়েকজন এসে তাঁদের উত্ত্যক্ত করে। হৃদয় এর প্রতিবাদ করলে তারা চলে যায়। এর কিছুক্ষণ পরেই হৃদয় তৃতীয় বিজ্ঞান ভবনের পেছনে গেলে একা পেয়ে হামজাসহ কয়েকজন তাঁকে ছুরিকাঘাত করে। পরে আশপাশের লোকজন হামজাকে আটক করে পুলিশে খবর দেয়। এ সময় হামজার সঙ্গে থাকা দুজন পালিয়ে যায়।

এ ব্যাপারে হামজা বলেন, ‘আমি কাউকে ছুরিকাঘাত করিনি। আমার সঙ্গে আরো দুজন ছিল। ওরা ছুরি মেরেছে।’

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক লুৎফর রহমান বলেন, ‘ছুরিকাঘাতের ঘটনা শুনেই আমি আহত শিক্ষার্থীকে রামেক হাসপাতালে পাঠিয়েছি। আর একজনকে পুলিশে দেওয়া হয়েছে।’

জানতে চাইলে মতিহার থানার সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) মতিউর রহমান বলেন, ‘ঘটনা জানার পরপরই আমরা অভিযুক্তকে আটক করেছি। তাকে থানায় রাখা হয়েছে।’

এইচজে/ ১৭ মে ২০১৮

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।