কোটা নিয়ে রাবি উপাচার্যের বক্তব্য প্রত্যাহার দাবি


টাইমস ডেস্ক
Published: 2018-07-08 07:41:22 BdST | Updated: 2019-09-20 12:19:14 BdST

কোটা সংস্কার আন্দোলন নিয়ে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় (রাবি) উপাচার্য অধ্যাপক এম আব্দুস সোবহানের দেওয়া বক্তব্য প্রত্যাহারের দাবি জানিয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয় শাখা প্রগতিশীল ছাত্রজোটের নেতাকর্মীরা।

শনিবার (০৭ জুলাই) সকাল সাড়ে ১১টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের অামতলায় সংগঠনটির আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তারা এ দাবি জানায়।

এরআগে, শুক্রবার (০৭ জুলাই) বিশ্ববিদ্যালয়ের ৬৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে কোটা আন্দোলনকারীদের সন্ত্রাসী বলে আখ্যায়িত করেন উপাচার্য।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে প্রগতিশীল ছাত্রজোটের সমন্বয়ক সুমন মোড়ল বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে উপাচার্য বিশ্ববিদ্যালয়কে একটি স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠান থেকে ‘সরকারি প্রতিষ্ঠান’ বানিয়ে দেন। তিনি জানিয়ে দেন, যারা সরকারে আছেন কেবল তারাই কথা বলার অধিকার রাখেন। বাদ বাকি সবাইকে বিএনপি-জামায়াত-শিবির বলে সাধারনিকীকরণ করেন। নিপীড়কদের পক্ষ নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের ধারণাকে অপমান করে দেয়া তার এমন বক্তব্য অগণতান্ত্রিক এবং সাধারণ শিষ্টাচার বহিঃর্ভূত। তার এমন বক্তব্য সাধারণ শিক্ষার্থীকে মর্মাহত করছে। আমরা লজ্জিত বোধ করছি। আমরা অবিলম্বে এই বক্তব্যের প্রত্যাহার দাবি করছি।

সংবাদ সম্মেলনে প্রগতিশীল ছাত্রজোটের নেতাকর্মীরা সরকারের প্রতি পাঁচ দফা দাবি জানান।

দাবিগুলো হলো- কোটা অান্দোলনকে ‘সরকার পতন আন্দোলন’ জাতীয় মিথ্যাচার থেকে বেরিয়ে এসে সরকার শিক্ষার্থীদের কোটা সংস্কারের দাবিকে মানবিক বিবেচনায় দেখা। অবিলম্বে বিশেষজ্ঞদের সমন্বয়ে কোটা সংস্কার বিষয়ক একটি কমিশন গঠন করে সব শ্রেণি-পেশার মানুষের মতামতের ভিত্তিতে প্রয়োজনীয় রিপোর্ট প্রস্তুত করা। বিচার বিভাগীয় তদন্তের মাধ্যমে হামলাকারী সন্ত্রাসীদের বিচার করা। গ্রেফতারকৃত আন্দোলনকারীদের যেন আইনী অধিকার থেকে বঞ্চিত না করা হয় সে বিষয়টি নিশ্চিত করা ও হামলায় আহতদের চিকিৎসা সেবা নিশ্চিত করা।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন রাবি শাখা ছাত্র ইউনিয়নের সভাপতি এএম শাকিল হোসাইন, রাবি সমাজতান্ত্রিক ছাত্রফ্রন্টের সাধারণ সম্পাদক আল আমিন প্রধান তারেক, বিপ্লবী ছাত্র মৈত্রীর সভাপতি মনির হোসেন প্রমুখ।

টিআই/ ০৮ জুলাই ২০১৮

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।