ফিরে দেখা-২০১৭

উপাচার্য ইস্যুতে আলোচনায় ছিল রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়


টাইমস প্রতিবেদক
Published: 2017-12-31 18:27:12 BdST | Updated: 2018-12-13 15:54:35 BdST

অতিরিক্ত আপ্যায়ন খরচ, ভর্তি পরীক্ষার সম্মানি হিসেবে ‘অনৈতিকভাবে’ বিপুল অংকের অর্থগ্রহণসহ বিভিন্ন অভিযোগ মাথায় নিয়ে ৫ মে মেয়াদ শেষ করেন রংপুরে বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক এ কে এম নূর-উন নবী।

শিক্ষক সমিতির অভিযোগের ভিত্তিতে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের (ইউজিসি) করা তদন্তে সেগুলো ‘প্রমাণিত’ হওয়ার পর চার বছরের মেয়াদ শেষ হয় অধ্যাপক নূর-উন নবীর।

মেয়াদ শেষ করার দু’দিন আগে চাকরি দাবিকারী ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের ১৩ ঘণ্টার অবরোধে ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় পপুলেশন সায়েন্স বিভাগ থেকে প্রেষণে যাওয়া এই অধ্যাপক। পরে পুলিশের সহায়তায় উদ্ধার হতে হন তিনি।

নাজমুল আহসান কলিমউল্লাহ

 

পরবর্তীতে ১ জুন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের লোক প্রশাসন বিভাগের অধ্যাপক নাজমুল আহসান কলিমউল্লাহকে নতুন উপাচার্য হিসাবে পায় উত্তর জনপদের এই বিশ্ববিদ্যালয়। ২০০৮ সালে প্রতিষ্ঠিত বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের চতুর্থ উপাচার্য হিসেবে নিয়োগ পান কলিমউল্লাহ।

এর আগে নিয়োগ পাওয়া তিন উপাচার্যের দুজনই ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক। বিদায়ী উপাচার্য নূর-উন-নবী ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের পপুলেশন সায়েন্সের অধ্যাপক। আর প্রথম উপাচার্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কম্পিউটার সায়েন্স বিভাগের অধ্যাপক লুৎফর রহমান।

এইচজে/ ৩১ ডিসেম্বর ২০১৭

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।