ইজতেমায় আখেরি মোনাজাত

ভেদাভেদ ভুলে সব মুসলমানের ঐক্য কামনা


টাইমস প্রতিবেদক
Published: 2018-01-21 14:44:03 BdST | Updated: 2018-05-22 02:42:14 BdST

ভেদাভেদ ভুলে সব মুসলমানের ঐক্য কামনা করে আখেরি মোনাজাতের মধ্যদিয়ে শেষ হলো ৫৩তম বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় পর্বের।

রোববার (২১ জানুয়ারি) সকাল ১০টা ২০ মিনিটে আখেরি মোনাজাত শুরু হয়। প্রথম ১০ মিনিট আরবিতে ও পরের বাকি ১৫ মিনিট বাংলায় মোনাজাত করা হয়।

মোনাজাত পরিচালনা করেন ঢাকার কাকরাইল জামে মসজিদের পেশ ঈমাম তাবলিগ জামাতের শুরা সদস্য হাফেজ মাওলানা মোহাম্মদ জুবায়ের।

মোনাজাতে মুসলিম উম্মাহর মাগফিরাত-নাজাত কামনা করেন মাওলানা জুবায়ের। কান্নাজড়িত কণ্ঠে আকুতি জানিয়ে তিনি বলেন, ‘হে আল্লাহ আমাদের ঈমান বাড়িয়ে দিন, আমাদের মাফ করে দিন। হে আল্লাহ আমাদের হেদায়েত করুন, আমাদের জন্য হকের রাস্তা খুলে দিন। হে আল্লাহ আমাদেরকে আপনার কুদরত দিয়ে হেফাজত করুন। মায়ের পেটে বাচ্চা যেমন নিরাপদ থাকে আপনাদের বান্দাদের সেভাবে হেফাজত করন। হে আল্লাহ আমাদেরকে কবরের আজাব থেকে হেফাজত করুন।’ এদিন আখেরি মোনাজাতে অংশ নিতে ঢাকা ও পার্শ্ববর্তী বিভিন্ন জেলা থেকে মুসল্লিরা আখেরি মোনাজাতে অংশ নেয়ার জন্য সমবেত হন। সকাল থেকেই ট্রেন, বাস ও পায়ে হেটে ইজতেমা প্রাঙ্গণে জড়ো হন মুসল্লিরা।

ফজর নামাজের শেষে আম বয়ান শুরু হয়। এরপর হেদায়তি বয়ান শেষে মহান আল্লাহর কাছে হাত তুলে ইহকালের কল্যাণ ও পরকালের মুক্তির জন্য মোনাজাতে শামিল হন।

বিদেশি নিবাসের পূর্বপাশে বিশেষ মোনাজাত মঞ্চ থেকে মোনাজাত পরিচালনা করেন মাওলানা মুহম্মদ জোবায়ের। মোনাজাতে বাংলাদেশসহ সারা দুনিয়ার মানুষের সুখ, শান্তি ও কল্যাণ কামনা করে দোয়া করা হয়। এসময় মুসল্লিদের আমিন আমিন ধ্বনিতে টঙ্গীর তুরাগ পাড় ও চারপাশের এলাকা মুখরিত হয়ে উঠে।

আখেরি মোনাজাতে অংশ নেন মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক, গাজীপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ মো. জাহিদ হাসান রাসেল, গাজীপুর সিটি করপোরেশনের মেয়র অধ্যাপক এম এ মান্নান, গাজীপুর জেলা প্রশাসক ড. মোহাম্মদ হুমায়ুন কবীরসহ সরকারের বিভিন্ন পর্যায়ের উর্ধ্বতন কর্মকর্তা, র‌্যাব, পুলিশ, সেনাবাহিনীর সদস্যরা।

সুন্দর ও শান্তিপূর্ণ ভাবে এবারের বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় পর্ব সম্পন্ন হয়েছে। মোনাজাতে বাংলাদেশের ১৬টি জেলার এবং বিদেশি মুসল্লিসহ ২০ থেকে ২৫ লাখ মানুষ অংশ গ্রহণ করে বলে ধারণা করছে বিশ্ব ইজতেমা আয়োজক কমিটি। এর আগে গত ১২ জানুয়ারি শুরু হয়ে ১৪ জানুয়ারি ইজতেমার প্রথম পর্ব শেষ হয়।

এসকে/ ২১ জানুয়ারি ২০১৮

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।