পালিয়ে বিয়ে: ক্ষোভে দুলাভাইকে খুন করল বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র


টাইমস ডেস্ক
Published: 2018-08-26 10:21:45 BdST | Updated: 2018-11-18 02:25:40 BdST

জামালপুরে দুলাভাইকে কুপিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে শ্যালকের বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে শুক্রবার রাত একটায় সদর উপজেলার লাহেড়িকান্দার নবাবপুর গ্রামে।

এ ঘটনায় শ্যালক খালিদ হাসান স্বরণ চৌধুরীকে আটক করেছে পুলিশ। নিহত জামিরুল ইসলাম ছোটন তালুকদার (৩৫) নবাবপুর গ্রামের আবু তাহের তালুকদারের ছেলে।

নরুন্দি পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের এসআই মো. সাদির উদ্দিন জানান, জামিরুল ইসলাম ছোটন ৩ বছর আগে দূরসম্পর্কের চাচাতো ভাই ফজলুল হক চৌধুরীর মেয়ে লুবানা আক্তারকে (২৬) পালিয়ে বিয়ে করেনে। মেয়ের পরিবার তাদের বিয়ে মেনে নেয়নি। তারপর থেকে স্ত্রীকে নিয়ে তিনি ঢাকায় বাস করেন। ঈদের ছুটি ও পারিবারিক বিয়ে উপলক্ষে গ্রামে আসেন।

শুক্রবার রাত একটার দিকে বিয়ের পূর্ব প্রস্তুতির কাজ শেষে ছোটন বাড়ীর সামনে পুকুর পাড়ে গিয়ে বিশ্রাম নিচ্ছিলেন।

এ সময় তার শ্যালক খালিদ হাসান স্বরন চৌধুরী রামদা দিয়ে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে রক্তাক্ত জখম করে। পরে পরিবারের লোকজন আহত ছোটনকে ময়মনসিংহ হাসপাতালে নেয়ার পথে মারা যান তিনি।

হত্যাকাণ্ডের পর খালিদ হাসান স্বরণ নরুন্দি পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রে নিজেই উপস্থিত হয়ে আত্মসমর্পণ করেন। পুলিশের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে স্বরণ বলেন, আমার বোন পালিয়ে চাচাকে বিয়ে করায় এলাকার মানুষের তীর্যক কথায় ক্ষিপ্ত হয়ে হত্যাকাণ্ডটি ঘটিয়েছি। আটক খালিদ হাসান স্বরণ জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র।

জামালপুর সদর থানার অফিসার ইনচার্জ মো. নাছিমুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, এ ব্যাপরে জামালপুর সদর থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

এসজে/ ২৬ আগস্ট ২০১৮

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।