সাংবাদিক ইলিয়াসের ভিডিও সরাতে ইউটিউবকে আইনি নোটিশ


Dhaka
Published: 2020-11-16 20:57:40 BdST | Updated: 2020-11-27 19:50:25 BdST

ইউটিউবের প্রধান নির্বাহীকে আইনি নোটিশ দিয়েছে বাংলাদেশ বিমানবাহিনীর সাবেক কর্মকর্তা ড. জাহিদুল ইসলাম। আপত্তিকর ভিডিও কনটেন্ট সম্প্রচারের অভিযোগে এ নোটিশ দেয়া হয়েছে। আজ সোমবার (১৬ নভেম্বর) তার পক্ষে সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী সাফায়েত হোসেন সজিব এ নোটিশ দেন।

নোটিশ প্রাপ্তির ৩০ দিনের মধ্যে একুশে টিভির সাবেক সাংবাদিক ইলিয়াস হোসেনের ইউটিউব প্রোগ্রাম ফিফটিন মিনিটস’র কার্যক্রম বন্ধ করাসহ সন্তোষজনক জবাব না পেলে ইউটিউবের বিরুদ্ধে ৫০ লাখ ইউএস ডলার ক্ষতিপূরণ চেয়ে মামলা করা হবে বলে নোটিশে উল্লেখ করা হয়।

ভিডিওতে সাবেক সাংবাদিক ইলিয়াস জাহিদ সম্পর্কে বলেছেন, তিনি একাধারে শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান এবং শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শ বুকে ধারণ করেন। যিনি একাধারে খালেদা জিয়া এবং শেখ হাসিনা দুজনকে তার আদর্শের মা মনে করেন। এক সময় যিনি শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানকে নিয়ে বই লিখতেন এখন তিনি শেখ মুজিবকে নিয়ে বই লিখছেন। অভিনব সেই ডিজিটাল প্রতারকের নাম জনাব মুহাম্মদ জাহিদুল ইসলাম।

এভাবেই সাবেক সাংবাদিক ইলিয়াস জাহিদুল ইসলামকে তার ভিডিওর শুরুতে পরিচয় করিয়ে দিচ্ছিলেন। ৭.৪০ সেকেন্ডের ওই ভিডিওতে তিনি তার মতো করে ব্যক্তি জাহিদ সম্পর্কে বেশকিছু তথ্য তুলে ধরেছেন। ইউটিউবে ভিডিওটি ইতিমধ্যে প্রায় আড়াই লাখ মানুষ দেখেছেন এবং প্রায় ১৯ হাজার মানুষ এটি পছন্দ করেছেন।

মামলার বিষয়ে আইনজীবী সাফায়েত হোসেন সজিব জানান, গত ১২ সেপ্টেম্বর ড. জাহিদুল ইসলামকে নিয়ে একটি মিথ্যা, বানোয়াট, উদ্দেশ্যমূলক ও আপত্তিকর ভিডিও সম্প্রচার করে মানহানি ঘটায়। আব্দুস সালাম কুটির পক্ষাবলম্বন করে ভিডিও সম্প্রচার করে জাহিদুল ইসলামকে সামাজিকভাবে হেয়-প্রতিপন্ন করার দুরভিসন্ধি নিয়ে অপূরণীয় ক্ষতিসাধন করে। যার আনুমানিক মূল্য ৫০ লাখ ইউএস ডলার।

তিনি বলেন, এ নিউজ সম্প্রচারের প্রতিবাদ জানিয়ে ইউটিউবের সিইও বরাবরে গত ১৯ সেপ্টেম্বর ও ১৮ অক্টোবর দুটি চিঠি পাঠানো হলেও কর্তৃপক্ষ কোনো ব্যবস্থা নেয়নি। এ কারণে এ নোটিশ দেয়া হয়। নোটিশ প্রাপ্তির ৩০ দিনের মধ্যে ১৫ মিনিট এর কার্যক্রম বন্ধ করাসহ সন্তোষজনক জবাব না পেলে ৫০ লাখ ইউএস ডলারের ক্ষতিপূরণ মামলা করা হবে।