শাবিতে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তাসম্পন্ন প্রথম বাংলা কিবোর্ডের উদ্বোধন


টাইমস অনলাইনঃ
Published: 2018-02-20 11:30:22 BdST | Updated: 2018-12-10 09:25:44 BdST

কম্পিউটার ও তথ্যপ্রযুক্তির খাতে আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ উদ্ভাবনের সঙ্গে যুক্ত হলেন শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (শাবিপ্রবি) শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা। বিশ্ববিদ্যালয়ের কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের একটি টিম কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা সম্পন্ন বাংলা যে কি-বোর্ড তৈরি করেছেন, আজ মঙ্গলবার (২০ ফেব্রুয়ারি) তার উদ্বোধন হলো। মূলত অ্যান্ড্রয়েড সিস্টেম মোবাইল ফোনে এই কিবোর্ড ব্যবহার করা যাবে। এর আগে শাবিপ্রবির শিক্ষার্থীরা প্রথমবারের মতো মোবাইলে ভর্তি কার্যক্রম চালু, দেশের সর্বপ্রথম বাংলা সার্চ ইঞ্জিন ‘পিপীলিকা’ ও দেশের প্রথম বাংলায় কথা বলা রোবট ‘রিবো’সহ গুরুত্বপূর্ণ বেশকিছু প্রযুক্তি উদ্ভাবন করেন।

মঙ্গলবার দুপুর ১টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের এম এ ওয়াজেদ মিয়া (আইআইসিটি) ভবনে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলন শেষে ‘একুশে বাংলা কিবোর্ড’ উদ্বোধন করেন বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ এবং লেখক অধ্যাপক ড. মুহম্মদ জাফর ইকবাল।

উদ্বোধনকালে ড. জাফর ইকবাল বলেন, ‘কি-বোর্ডটি তার কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা দিয়ে নিজেই বুঝে ফেলবে আপনি কী লিখতে চাচ্ছেন। এক সময় আমরা বাংলা লিখতে গেলে ইংরেজি অক্ষর ব্যবহার করতাম, যা আমাদের পীড়া দিত। এখন আর এ সমস্যা থাকবে না।’

তিনি আরও বলেন, ‘এটাতে কৃত্রিম বৃদ্ধিমত্তা সংযোজনের পাশাপাশি দ্রুত টাইপিংয়ের ও স্পর্শ করে লেখার ব্যবস্থা রয়েছে। ফলে টাইপ না জানলেও যে কেউ সহজেই এটাতে বাংলা টাইপিং শিখতে পারবেন।’

‘একুশে বাংলা কিবোর্ড’ দেশের তথ্য প্রযুক্তি খাতে নতুন ধারা সংযোজন করবে বলে জানান সংশ্লিষ্টরা। এসময় উপস্থিত ছিলেন সিএসই বিভাগের প্রধান অধ্যাপক ড. রেজা সেলিম, অধ্যাপক ড. শহীদুর রহমান, অধ্যাপক ড. জহিরুল ইসলাম প্রমুখ।

কিবোর্ড আবিষ্কারক টিমের সদস্যরা হলেন- সহকারী অধ্যাপক বিশ্বপ্রিয় চক্রবর্তী, টিমের সদস্য উখই নু (২০১২-১৩ সেশন), গৌতম চৌধুরী, বুদ্ধ চন্দ্র বণিক (২০১৩-১৪ সেশন), ইউজার সারফেস ডিজাইনার শিক্ষার্থী ফয়সাল হক প্রমুখ।

সহকারী অধ্যাপক বিশ্বপ্রিয় চক্রবর্তী বলেন, “এই কিবোর্ডে সব সময় সবকিছু লিখতে হবে না। কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা দিয়ে এটি নিজেই বুঝে ফেলবে আপনি কী লিখতে চাচ্ছেন। আপনি যদি লিখেন ‘আমি ভালো’ তবে আমাদের তৈরি কিবোর্ড তার কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা দিয়েই বুঝে ফেলবে যে আপনি লিখতে চাচ্ছেন ‘আমি ভালো আছি’।”

তিনি আরও জানান, ‘সময়ের সঙ্গে সঙ্গে কিবোর্ডের বুদ্ধি বাড়তে থাকবে। কিবোর্ড যত বুদ্ধিমান হবে আপনাকে তত কম লিখতে হবে, আপনার পরিশ্রম তত কমে যাবে। একজন ব্যবহারকারী বাংলা এবং ইংরেজি দুটি ভাষাতেই খুব সহজে লিখতে পারবেন।’

উদ্ভাবকরা জানান, বর্তমানে কিবোর্ডে প্রায় ১২০টি ইমোজি রয়েছে। ব্যবহারকারীর সুবিধার্থে পরবর্তীতে আরও ইমোজি বাড়ানো হবে।

উদ্ভাবক টিমের ভবিষ্যৎ পরিকল্পনায় রয়েছে- কিবোর্ডে ভয়েস সার্চ, বিভিন্ন ধরনের ইমোজি এবং স্টিকার, আইওএস ভার্সন রিলিজ। ব্যবহারের ওপর ভিত্তি করে সাজেশনও যুক্ত করা হবে।

Banglatribune

বিডিবিএস 

 

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।