মন কেড়েছেন প্রেসিডেন্ট, এবার ক্রোয়েশিয়ান প্রধানমন্ত্রী


টাইমস অনলাইনঃ
Published: 2018-07-13 10:04:42 BdST | Updated: 2018-10-22 02:05:52 BdST

রাশিয়া বিশ্বকাপে মাঠ মাতাচ্ছেন মদ্রিচ, রেকিটিচ, মানজুকিচরা। আর গ্যালারি মাতাচ্ছেন তাদের দ্বাদশ এক খেলোয়াড়, তিনি ক্রোয়েশিয়ার বর্তমান প্রেসিডেন্ট। এইতো কদিন আগেই ক্রোয়েশিয়ান প্রেসিডেন্ট কোলিন্দা গ্র্যাবার-কিটারোভিচের কিছু ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে ভাইরাল হয়। ছবিতে দেখা যায়, স্বাগতিক রাশিয়ার বিপক্ষে টাইব্রেকারে জয়ের পর ভিআইপি গ্যালারিতে নেচে নেচে উদযাপন করছেন কোলিন্দা।

শেষ চারে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ২-১ গোলের জয় নিয়ে মাঠ ছেড়েছে ক্রোয়েশিয়া। তাতে, প্রথমবারের মতো বিশ্বকাপের ফাইনালে উঠে ক্রোয়েটরা। তাদের প্রতিপক্ষ ১৯৯৮ বিশ্বকাপ জয়ী ফ্রান্স। জিতলেই ক্রোয়েশিয়ার জন্য লেখা হবে নতুন ইতিহাস।

বিশ্বকাপের শুরু থেকেই রাশিয়ায় আছেন কোলিন্দা। খেলোয়াড়দের অনুপ্রেরণা যোগাতে জার্সি পরে গ্যালারিতে হাজির থাকছেন। এমনকি দলের জয়ের পর সোজা চলে যাচ্ছেন ড্রেসিংরুমেও। শেষ ষোলোতে ডেনমার্ককে হারানোর পর ক্রোয়েশিয়ার এই দ্বাদশ খেলোয়াড় সরাসরি হাজির হয়েছিলেন ক্রোয়েশিয়ার ড্রেসিংরুমে। অনেকেই বলছেন, প্রেসিডেন্টের অনুপ্রেরণায় নাকি ক্রোয়েশিয়ার সাফল্যের টোটকা।

রাশিয়ার বিপক্ষে পেনাল্টি শুটআউটের শেষ শটটা রাশিয়ার জালে জড়িয়ে ক্রোয়েশিয়ার ইভান রেকিটিচ দৌড় শুরু করেন, ভিআইপি বক্সে ফিফা প্রেসিডেন্ট জিয়ান্নি ইনফান্তিনো ও রাশিয়া প্রধানমন্ত্রী দিমিত্রি মেদভেদেভের পাশে চুপটি করে বসে থাকা কোলিন্দা এ সময় নাচতে শুরু করেন। ক্রোয়েশিয়ার প্রেসিডেন্ট কোলিন্দার নাচের ভিডিওটিও ভাইরাল হয়েছিল। তাতে সবার মন কেড়ে নেন কোলিন্দা। যেন তিনি এই দলটারই অংশ, ক্রোয়েট খেলোয়াড়দেরই একজন। বিশ্বকাপের মঞ্চে একজন প্রেসিডেন্টের ফুটবল নিয়ে এরকম উন্মাদনা দেখাটাই অনেকের জন্য দারুণ এক ব্যাপার।

এতোক্ষণ গেল প্রেসিডেন্টের কথা। সেমিতে ইংল্যান্ডকে হারানোর পর ক্রোয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী আন্দ্রেজ প্লেনকোভিচের কথা এবার সবার সামনে এসেছে। নিজের ব্যস্ত সূচির কারণে রাশিয়ায় গিয়ে খেলা দেখা সম্ভব না হলেও তিনি দাপ্তরিক কাজ সারছেন ক্রোয়েশিয়া জাতীয় দলের জার্সি চাপিয়ে। এই ছবিটি এবার ভাইরাল হতে শুরু করেছে।

এদিকে, বেলজিয়ামের ব্রুসেলসে অনুষ্ঠিত হওয়া (১১ ও ১২ জুলাই) ন্যাটোর সামিটে অংশ নেওয়ায় ইংল্যান্ড-ক্রোয়েশিয়া ম্যাচ মাঠে বসে দেখতে পারেননি কোলিন্দা। তবে, মন পড়েছিল সেমির ম্যাচে, টেলিভিশনের পর্দায় চোখ রেখেছিলেন। ম্যাচ শেষে এক টেবিলে রাতের খাবার খেয়েছেন ফরাসি প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাকরনের সঙ্গে। ফরাসিদের বিপক্ষেই ফাইনালের মহারণে নামবে ক্রোয়েশিয়া। কোলিন্দা জানালেন, ফাইনালে আমি আর ম্যাকরন একসঙ্গে ম্যাচটি মাঠে বসে উপভোগ করার চেষ্টা করবো। আমি আশাবাদী ফ্রান্সকে হারিয়ে শিরোপা নিয়ে আসবে ক্রোয়েশিয়া।

রাশিয়া বিশ্বকাপের ফাইনালে ফ্রান্সকে হারিয়ে প্রথমবার শিরোপা জিততে পারবে কি ক্রোয়েশিয়া? পারবে কি পারবে প্রেসিডেন্ট-প্রধানমন্ত্রীর মতো সাধারাণ ভক্তদের এই প্রত্যাশা পূরণ করতে?

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।