সাদেকা হালিমের স্বেচ্ছায় পদত্যাগ দাবি ঢাবি ছাত্রদলের


ঢাবি টাইমস
Published: 2018-10-24 22:25:41 BdST | Updated: 2018-11-18 00:24:04 BdST

চলতি বছর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদ অধিভুক্ত ‘ঘ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষায় প্রশ্নফাঁসের ঘটনায় ও্ই পরীক্ষার মূল সমন্বয়কারী অধ্যাপক ড. সাদেকা হালিমের স্বেচ্ছায় পদত্যাগ করা উচিত ছিল বলে মনে করছেন ঢাবি শাখা ছাত্রদল।

একই সঙ্গে এ ঘটনায় বিচার বিভাগীয় তদন্তের মাধ্যমে ড. সাদেকা হালিমসহ জড়িত সকলের বিচারের আওতায় আনা উচিত এবং নতুন ডিনের অধীনে পরীক্ষা নেওয়ার জোর দাবি জানায় ছাত্রদল।

বুধবার এক প্রেস বিবৃতিতে ঢাবি ছাত্রদল জানান, গত বার সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. সাদেকা হালিম ভারপ্রাপ্ত ডিন নির্বাচিত হওয়ার পর ওই সময়ও একই ইউনিটের প্রশ্নপত্র ফাঁস হওয়ার ঘটনা ঘটেছিল। কিন্তু তখন ফাঁস হওয়া প্রশ্নপত্রে পরীক্ষায় নিয়ে শিক্ষার্থীদের ভর্তি করিয়ে নতুন নজির স্থাপন করেন ড. সাদেকা হালিম। সে ঘটনার লোক দেখানো তদন্ত হলেও বিচার করা হয়নি।

অধ্যাপক ড. সাদেকা হালিমের অধীনে ২য় বারের মত গত ১২ অক্টোবর এ বছর সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। পরীক্ষা শুরু হওয়ার আগেই হাতে লেখা প্রশ্নপত্র সাংবাদিকদের হাতে চলে আসে। প্রথমে ড. সাদেকা হালিম এই ঘটনাকে গুজব বলে এড়িয়ে গেলেও পরবর্তীতে তিনি সাংবাদিকদের মুখোমুখি হননি।

পরবর্তীতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি) শাখা ছাত্রদলসহ বিভিন্ন মহলের আপত্তি সত্ত্বেও ১৬ অক্টোবর, ২০১৮ তারিখে ফল প্রকাশ করে ‘নির্লজ্জ’ প্রশাসন। এরপর ২০ অক্টোবর এ ফলাফল বাতিল করে পুনরায় নতুন প্রশ্নপত্রে পরীক্ষা গ্রহণ ও ড. সাদেকা হালিমকে বহিস্কার করে বিচারের আওতায় আনা এবং ভিসি অধ্যাপক ড. মোঃ আখতারুজ্জামানের পদত্যাগের দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল করে ঢাবি ছাত্রদল।

বিবৃতিতে ঢাবি ছাত্রদল আরও জানায়, বিভিন্ন মহলের আপত্তি মুখে মঙ্গলবার পুণরায় ‘ঘ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা নেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয় প্রশাসন। এ সিদ্ধান্ত থেকে বুঝা যাচ্ছে, বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন স্বীকার করে নিল প্রশ্নপত্র ব্যাপকহারে ফাঁস হয়েছে এবং বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের বিপক্ষে ঢাবি ছাত্রদলের অবস্থান সঠিক ও যৌক্তিক ছিল। এজন্য ঢাবি ছাত্রদল মনে করে, ড. সাদেকা হালিমের প্রশ্নপত্র ফাঁসের ঘটনায় নিঃশর্ত ক্ষমা প্রার্থনা করে স্বেচ্ছায় পদত্যাগ করা উচিত ছিল কিন্তু তিনি নির্লজ্জভাবে পদ আঁকড়ে রয়েছেন।

মঙ্গলবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের ভর্তি পরীক্ষা বাতিল করে পুনরায় পরীক্ষা নেওয়ার দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ শেষে ফেরার পথে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের হাতে মারধরের শিকার বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের যুগ্ম আহ্বায়ক আতাউল্লাহ, রাতুল সরকার, মুহাম্মদ তুহিন ফারাবি এবং ফারুক হাসানের আশু সুস্থতা কামনা করে এ ঘটনায় জড়িতদের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি) থেকে বহিস্কার করে দেশের প্রচলিত আইনে বিচারের দাবি জানায় ঢাবি ছাত্রদল।




সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।