ওয়াসির মা-ভাই আজ থেকে আমাদের মা-ভাই: গোলাম রাব্বানী


ঢাকা
Published: 2019-07-20 20:59:07 BdST | Updated: 2019-08-21 16:25:51 BdST

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় (জবি) শাখা ছাত্রলীগের সম্মেলনে এসে হিটস্ট্রোক করে সুলতান মো. ওয়াসি নামের এক ছাত্রলীগ-কর্মীর মৃত্যু হয়েছে। তিনি জবির ইংরেজী বিভাগে ১১তম ব্যাচের ২০১৫-২০১৬ সেশনের শিক্ষার্থী। নিহত সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানীর অনুসারী ছিলেন বলে যানা যায়। ওয়াসীর বাড়ি নোয়াখালী জেলাতে।

ছাত্রলীগের এই কর্মীর মৃত্যুতে তার পরিবারের পাশে থাকার ঘোষণা দিয়েছে ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী। শনিবার রাতে এক ফেসবুক স্ট্যাটাসে তিনি লেখেন, ‘কেন্দ্রীয় সম্মেলনের আগের কঠিন সময়ে ছাত্রলীগের যে কয়েকজন শুভাকাঙ্ক্ষী অনুজ সবসময় ম্যাসেজ আর ইনবক্সে লেখনীর মাধ্যমে অনুপ্রেরণা আর সাহস যোগাতো তার মাঝে অন্যতম, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের নিবেদিতপ্রাণ কর্মী এস এম ওয়াসি।’

‘অত্যন্ত দুঃখ ভারাক্রান্ত হৃদয়ে জানাচ্ছি, ওয়াসি আজ বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সম্মেলন চলাকালীন সময়ে অতিরিক্ত গরমে হিট স্ট্রোক করলে সহযোদ্ধারা তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। ইন্না-লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহির রাজিউন।’

‘ছোটবেলায় বাবা হারা ওয়াসি অনেক স্বপ্ন নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তির পর থেকেই ছাত্রলীগের রাজনীতিতে সক্রিয় ছিলো। আমরা বাংলাদেশ ছাত্রলীগ পরিবার গভীর শোকাহত। ওয়াসির মা আর একমাত্র ছোট ভাই আজ থেকে আমাদের মা, আমাদের ভাই; যেকোনো প্রয়োজনে ছাত্রলীগ পরিবারের পক্ষ থেকে তাদের পাশে থাকবো ইনশাআল্লাহ। আল্লাহ আমাদের ভাইকে জান্নাতবাসী করুক। সবার অন্তঃপ্রাণ দোয়া কামনা করছি।’

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।