ইফতারের জন্য বরাদ্দ টাকা দরিদ্র শিক্ষার্থীদেরকে দেওয়ার আহ্বান


Dhaka
Published: 2020-04-09 00:59:06 BdST | Updated: 2020-05-30 08:17:53 BdST

করোনা মোকাবেলায় পহেলা বৈশাখে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের এক বেলার খাবার বাবদ ৫৪ লাখ টাকা মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ত্রান তহবিলে দেয়ার বিষয়টি নিয়ে কতিপয় শিক্ষার্থীর সমালোচনাকে স্বাগত জানিয়ে পরিস্থিতি বিবেচনায় বিষয়টিকে ইতিবাচক ও উদার দৃষ্টিভঙ্গিতে দেখা ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের জন্য বিকল্প খাতগুলোর পুরোপুরি ব্যবহারের আহ্বান জানিয়েছেন ঢাকা ইউনিভার্সিটি ডিবেটিং সোসাইটির সাবেক সভাপতি ও বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাহিত্য সম্পাদক এস এম রাকিব সিরাজী।

তিনি বলেন একটি উদার,গনতান্ত্রিক ও মানবিক বিশ্ববিদ্যালয় হিসেবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় অতীতের সব সংকটে জাতির কান্ডারীর ভূমিকা পালন করেছে । গত ১০০ বছরের ইতিহাসে বিরল এই 'করোনা'র মত এমন একটি সর্বাগ্রসী দুর্যোগে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়কে যেমন জাতির পাশে দাড়াতে হবে তেমনই নিজেদের শিক্ষার্থীদের পাশে দাড়ানোকেও অগ্রাধিকার দিতে হবে । এর জন্য দোষারূপের সংস্কৃতি থেকে বের হয়ে এসে প্রত্যেককে সক্রীয় ও বিকল্প অন্যান্য পন্থা খুঁজে বের করতে হবে।

তিনি বলেন রমজান মাস আসন্ন । প্রতি বছরই রমজানে বিশ্ববিদ্যালয়ের আবাসিক হলগুলোতে শিক্ষার্থীদেরকে একদিন ইফতার করানো হয়।যার গুনগত ও পরিমাণত মাপ পহেলা বৈশাখের খাবারের মতই।

বিশ্ববিদ্যালয়ের এই বরাদ্দটুকু দরিদ্র শিক্ষার্থীদেরকে সংকটকালীন বৃত্তি হিসেবে দেওয়ার জন্য বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনকে তিনি আহ্বান জানান।

এ ব্যাপারে ছাত্রদের প্রতিনিধিত্ব করে এমন সব ক্রিয়াশীল সংগঠন উদ্যোগী হয়ে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনকে এ ব্যাপারে সুপারিশ করবে বলেও তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

পাশাপাশি ডাকসুর স্বাধীনতা সংগ্রাম ও মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক সাদ বিন কাদের চৌধুরীর প্রস্তাবিত ডাকসুর অভিষেক অনুষ্ঠান বাবদ বরাদ্দকৃত ৩০ লাখ টাকার বিষয়টিকেও তিনি চমৎকার একটি প্রস্তাব হিসেবে মূল্যায়ন করেন।