কারা আসছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের নেতৃত্বে?


ঢাবি টাইমস
Published: 2018-04-25 00:53:18 BdST | Updated: 2018-08-21 08:24:37 BdST

বাংলাদেশ ছাত্রলীগের ২৯তম জাতীয় সম্মেলন আগামী ১১ ও ১২ মে। আর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে ২৯ এপ্রিল। কারা আসছেন অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ বৃহৎ এই শাখার নেতৃত্বে- এ নিয়ে চলছে চুলচেরা বিশ্লেষণ নেতা কর্মীদের মাঝে। শুরু হয়েছে শেষ মুহূর্তের হিসাব-নিকাশ।

একটি সংস্থার পক্ষ থেকে এরইমধ্যে সম্ভাব্য প্রার্থীদের তালিকা ও তাদের তথ্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে পাঠনো হয়েছে বলে জানা গেছে। এদিকে পদপ্রত্যাশীরা অবিরাম দৌড়ঝাঁপ করে চলেছেন। সকল পদ প্রত্যাশীদের সিভি চলে গেছে উপর মহলে। তবে এখনও ছাত্রলীগ আনুষ্ঠানিকভাবে জীবন বৃত্তান্ত আহ্বান করেনি। খুব শীগগির পদ-প্রত্যাশীদের কাছ থেকে সিভি আহবান করা হবে ছাত্রলীগের পক্ষ থেকে।

সূত্র জানায়, গত বেশ কয়েকটি ঢাবি ছাত্রলীগের কমিটিতে বৃহত্তর বরিশাল ও ফরিদপুরের নেতাদের নিয়ে আসা হয়েছিল। তবে বর্তমান কমিটির শীর্ষ দুইয়ে ঢাবিতে ফরিদপুর অঞ্চল থেকে কেউ না থাকায় এবার ফরিদপুর থেকে সভাপতি অথবা সাধারণ সম্পাদক পদে একজন আসতে পারে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক পদপ্রত্যাশী বলেন, এবার কেন্দ্রে যেহেতু সিলেট ও মাদারিপুরের সভাপতি-সম্পাদক সেহেতু এই দুইজনের কাছের লোকই ঢাবিতে নেতৃত্বে আসবেন। যেরূপ গতবছর বদিউজ্জামান সোহাগের একান্ত অনুসারী মোতাহার হোসেন প্রিন্স এবং সিদ্দিকী নাজমুলের অনুসারী আবিদ আল হাসান এসেছেন। নীতিনির্ধারকরা এবার বৃহত্তর বরিশাল ও ফরিদপুরের বাইরে যাবেন বলে আশা করছেন নেতা কর্মীরা।

সে হিসেবে এবারের কমিটিতে ঢাবি ছাত্রলীগের এক্সক্লুসিভ পদ প্রার্থী হলেন সাইফুর রহমান সোহাগের অনুসারী এস এম হল ছাত্রলীগের সভাপতি তাহসান আহমেদ রাসেল। এবং সাধারণ সম্পাদক এস এম জাকিরের বিশ্বস্ত অনুসারী ইউসুফ উদ্দিন খান অপূর্ব। তবে ইউসুফের কেন্দ্রেও সম্ভাবনা রয়েছে।

ঢাবিতে নেতৃত্বে আসতে পারেন আরও যারা: ক্লিন ইমেজের ছাত্রনেতা বঙ্গবন্ধু হলের সভাপতি বরিকুল ইসলাম বাধন, জুয়েল, বরকত, আল নাহিয়ান খান জয়-তবে তার কেন্দ্রেও সম্ভাবনা রয়েছে, এফ রহমান হলের সাবেক সভাপতি রুহুল আমিন-তারও কেন্দ্রে আসার সম্ভাবনা রয়েছে, জয়নাল আবেদিন, জিয়া হলের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল্লাহ আল মাসুদ লিমন, খাদেমুলরুল বাশার সজল এবং খাজা খায়ের সুজন এই দুইজনই ঢাবি অথবা কেন্দ্রে আসতে চাচ্ছেন। আরো আছেন, রাকিব,  রানা হামিদ, হাফিজ, ফকির রাসেল এবং আসিফ তালুকদার।

অনেকেই বলছেনে, এবারো গতবারের ন্যায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কোন হলের সভাপতি অথবা সাধারণ সম্পাদকদের মধ্য থেকে একজনকে এবং কেন্দ্র থেকে একজনকে ঢাবি ছাত্রলীগের নেতৃত্বে আনা হতে পারে। সেক্ষেত্রে কেন্দ্রীয় সভাপতি সোহাগ এবং সাধারণ সম্পাদক জাকিরের অনুসারী কোন হল সভাপতি অথবা সাধারণ সম্পাদকের ভাগ্য খুলতে পারে। 

বিদিবিএস 

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।