শিক্ষাবান্ধব বাজেট: শেখ হাসিনাকে স্বাগত জানিয়ে ছাত্রলীগের মিছিল


ঢাবি টাইমস
Published: 2018-06-07 23:56:13 BdST | Updated: 2018-06-22 11:31:59 BdST

শিক্ষাবান্ধব বাজেট ঘোষণায় শেখ হাসিনাকে স্বাগত জানিয়ে আনন্দ মিছিল করেছে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ।

বৃহস্পতিবার বিকেল সাড়ে চারটার দিকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে এই আনন্দ মিছিল ক্যাম্পাস প্রদক্ষিণ করে। 

সংগঠনটির কেন্দ্রীয় সভাপতি সাইফুর রহমান সোহাগ ও সাধারণ সম্পাদক এস এম জাকির হোসাইনের নেতৃত্বে মিছিলে ঢাবির বিভিন্ন হলের শত শত ছাত্রলীগ নেতাকর্মী অংশ নেয়। মিছিলটি মুধর ক্যান্টিন থেকে শুরু হয়ে অপরাজেয় বাংলায় গিয়ে শেষ হয়। পরে সেখানে সংক্ষিপ্ত সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

ছাত্রলীগের মিছিল 

সমাবেশে সাইফুর রহমান সোহাগ বলেন, বাংলাদেশকে সমৃদ্ধির পথে এগিয়ে নিতে ২১০৮-১৯ অর্থ বছরের বাজেট ঘোষণা করা হয়েছে। এই বাজেটে শিক্ষাখাতে সর্বোচ্চ বরাদ্দ রাখা হয়েছে। এই বাজেট ছাত্রবান্ধব বাজেট। তাই আমরা এই বাজেটকে স্বাগত জানাচ্ছি।

তিনি আরও বলেন, প্রধানমন্ত্রী জানেন কীভাবে বড় বাজেট প্রণয়ন করতে হয় এবং কীভাবে তা বাস্তবায়ন করতে হয়। তার সুযোগ্য নেতৃত্বেই বাংলাদেশ এখন বিশ্বে রোল মডেল। তাই বিশ্ববাসী এখন বাংলাদেশকে সমীহ ও সম্মানের চোখে দেখে।

এস এম জাকির হোসাইন বলেন, দেশকে এগিয়ে নিয়ে যেতে এই বাজেট ঘোষণা করা হয়েছে। যেখানে শিক্ষাখাতে সবচেয়ে বেশি বরাদ্দ রাখা হয়েছে। তাই জননেত্রী শেখ হাসিনাকে আমরা ছাত্র সমাজের পক্ষ থেকে ধন্যবাদ জানাই।

সমাবেশ 

এসময় আনন্দ মিছিলে উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম, সাকিব হাসান সুইম, যুগ্ম সম্পাদক সায়েম খান, নওশাদ উদ্দিন সুজন, দিদার মোহাম্মদ নিজামুল ইসলাম, শহিদুল ইসলাম শাহেদ, সাংগঠনিক সম্পাদক দারুস সালাম শাকিল, শরিফুল হাসান ফারুক, প্রচার সম্পাদক সাইফ বাবু, দপ্তর সম্পাদক দেলোয়ার শাহজাদা, পরিকল্পনা সম্পাদক রাকিব হোসেন, প্রশিক্ষণ সম্পাদক মাজহারুল ইসলাম শামীম, পরিবেশ সম্পাদক হাবিবুল্লাহ বিপ্লব, সমাজসেবা সম্পাদক রানা হামিদ, স্কুলছাত্র বিষয়ক সম্পাদক জয়নাল আবেদীন, উপ-সম্পাদক সৈয়দ আরাফাত,ইমদাদ হোসেন সোহাগ, নকিবুল ইসলাম সুমন, শাহজালাল শাওন, মুরাদ হায়দার টিপু, গোলাম মোস্তফা, হোসাইন সাদ্দাম, মোঃ হাসান, পার্থ প্রতীম ঘোষ, সহ-সম্পাদক এনামুল হক তানান, ঢাবি শাখার সাবেক সাধারণ সম্পাদক মোতাহার হোসেন প্রিন্স, যুগ্ম-সম্পাদক সরদার আরিফ, মাসুদ আল ইসলাম প্রমুখ।

উল্লেখ্য ২০১৮-১৯ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় এবং শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের দুই বিভাগের জন্য ৫৩ হাজার ৫৪ কোটা টাকা বরাদ্দের প্রস্তাব করা হয়েছে। এটি খাতওয়ারি দ্বিতীয় সর্বোচ্চ বরাদ্দ। তবে এখানে অবকাঠামো খাতের ওপর বেশি গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে।

বিদিবিএস 

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।