পাক-ভারত সীমান্তে পাল্টাপাল্টি গুলিতে নিহত ৭


টাইমস অনলাইনঃ
Published: 2019-03-03 00:20:27 BdST | Updated: 2019-05-26 02:39:01 BdST

পাকিস্তানে আটক ভারতীয় পাইলট অভিনন্দনকে ফিরিয়ে দেওয়ার পরও কাশ্মীর সীমান্তে দুই দেশের গোলাগুলিতে অন্তত সাতজন নিহত হয়েছেন। অভিনন্দনকে ফেরত পাওয়ার পর ভারতজুড়ে আনন্দের বন্যা বইলেও এ বিমান সেনার সামনে অনিশ্চিত ভবিষ্যতের ইঙ্গিত দিচ্ছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম।

পাকিস্তানে আটক ভারতীয় উইং কমান্ডার অভিনন্দনকে শান্তি বার্তার নিদর্শন হিসেবে শুক্রবার রাতে পাঞ্জাবের আত্তারি-ওয়াগাহ সীমান্তে ভারতের কাছে ফিরিয়ে দেয় পাকিস্তান। এরপরও কাশ্মীর সীমান্তে পরমাণু শক্তিধর দুই প্রতিবেশী দেশের মধ্যে উত্তেজনার আঁচ কমছে না।

পাল্টাপাল্টি বিমান হামলায় উত্তেজনা বাড়ার ধারাবাহিকতায় শুক্রবার গভীর রাত থেকে শনিবার ভোর পর্যন্ত কাশ্মীর সীমান্তে পাল্টাপাল্টি গোলাবর্ষণ করেছে ভারত ও পাকিস্তান। নয়াদিল্লির দাবি, কাশ্মিরের পুঞ্চ জেলার সালতোরি এলাকায় পাকিস্তানের ছোঁড়া গোলার আঘাতে একই পরিবারের তিনজন নিহত ও অনেকে আহত হয়েছেন।

অন্যদিকে পাকিস্তানের দাবি, ভারতীয় গোলার আঘাতে দুই পাক সেনা ও দুই বেসামরিক ব্যক্তি নিহত হন। আহত হন আরো তিনজন।

চলমান এই সংঘাতের কারণে সালতোরিসহ ঝিলাম উপত্যকা, সামাহানি, বিম্বার, মানকোট, বালাকোট ও নওশেরা এলাকা ছেড়ে নিরাপদ আশ্রয়ের জন্য অন্যত্র চলে যাচ্ছেন বাসিন্দারা।

এদিকে ভারতের উইং কমান্ডার অভিনন্দন বর্ধমানকে মুক্তি দেওয়ায় পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের প্রশংসা করেছেন ভারত নিয়ন্ত্রিত জম্মু কাশ্মীরের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী মেহবুবা মুফতি। তিনি বলেন, চলমান উত্তেজনা নিয়ে পাকিস্তানের মতো সদিচ্ছার পরিচয় দিচ্ছে না ভারত।

যদিও অভিনন্দনকে পাকিস্তানের মুক্তি দেওয়ার বিষয়টিকে ভারতীয় কূটনৈতিক শক্তির বিজয় বলে মনে করেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। শনিবার নয়াদিল্লিতে প্রযুক্তি বিষয়ক এক সম্মেলনে রাখা বক্তব্যে এমন আভাস দেন তিনি।

মোদি বলেন, কখনো অভিধানের শব্দের অর্থই বদলে যেতে পারে, দেশের সেই সক্ষমতা রয়েছে। অভিনন্দনের অর্থ ছিল ‘কনগ্রাচুলেশনস’ আর এখন সেটিও বদলে যেতে শুরু হয়েছে।

যদিও এর আগে ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ নিজেদের সংবরণ করার প্রতিশ্রুতি ব্যক্ত করেছেন।

প্রায় ৬০ ঘণ্টা পাকিস্তানে আটক থাকার পর দেশে ফিরলেও ভারতীয় বায়ুসেনা অভিনন্দনের সামনে এখন অনিশ্চিত ভবিষ্যৎ। ভারতীয় সংবাদমাধ্যম জানায়, দিল্লিতে একটি হাসপাতালে আছেন অভিনন্দন। দফায় দফায় ডাক্তারি পরীক্ষা আর গোয়েন্দা জিজ্ঞাসাবাদের মধ্য দিয়েই যেতে হবে তাঁকে। জেরা এবং ডাক্তারি পরীক্ষায় নিজের মানসিক ও শারীরিক সক্ষমতা প্রমাণে ব্যর্থ হলে, আর কোনোদিনই হয়তো যুদ্ধবিমানে সওয়ার হতে পারবেন না অভিনন্দন।

গত মঙ্গলবার ভারত সীমান্ত থেকে প্রায় ৪০ কিলোমিটার ভেতরে পাকিস্তানের কাশ্মীরের বালাকোট শহরে বোমা হামলা চালায় বেশ কয়েকটি ভারতীয় যুদ্ধবিমান। ভারত বলছে, ওই হামলায় সন্ত্রাসীদের একটি প্রশিক্ষণ শিবির ধ্বংস করা হয়েছে এবং কয়েকশ জঙ্গিকে হত্যা করা হয়েছে। পাকিস্তান অবশ্য সেখানে জঙ্গি প্রশিক্ষণ শিবির থাকার কথা অস্বীকার করেছে। স্থানীয়রা বলছেন, ভারতীয় হামলায় কেউ নিহত হয়নি, এতে বরং একজন আহত হয়েছে।

দীর্ঘদিন পর ভারত-পাকিস্তানের মধ্যকার উত্তেজনাকর পরিস্থিতি নিরসনে এরই মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রসহ বিশ্বক্ষমতাধর বেশ কয়েকটি দেশ মধ্যস্থতা করার কথা জানিয়েছে। ১৯৪৭ সালে ব্রিটিশদের কাছ থেকে স্বাধীন হওয়ার পর এ পর্যন্ত চার বার যুদ্ধে জড়িয়েছে প্রতিবেশী দেশ দুটি।

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।