কেন ৩ লাখেরও বেশি বই ধ্বংস করেছে তুরস্ক?


ঢাকা
Published: 2019-08-07 21:34:18 BdST | Updated: 2019-09-19 06:59:17 BdST

যুক্তরাষ্ট্রে নির্বাসিত তুরস্কের ধর্মীয় নেতা ফেতুল্লা গুলেন সম্পর্কিত ৩ লাখের বেশি বই তুরস্কের বিভিন্ন স্কুল ও লাইব্রেরি থেকে সরিয়ে ফেলা ও ধ্বংস করা হয়েছে। তুরস্কের শিক্ষামন্ত্রণালয় এতথ্য নিশ্চিত করেছে। খবর দ্য গার্ডিয়ানের।

এর কারণ, ফেতুল্লা গুলেনের ওপর রয়েছে তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোয়ানের সন্দেহ ও ক্ষোভ। এরদোয়ানের মতে, ২০১৬ সালে তার বিরুদ্ধে যে সামরিক অভ্যুত্থানের চেষ্টা করা হয়েছিল তাতে ইন্ধন ছিল ফেতুল্লা গুলেনের।

বই ধ্বংসের এই বিষয়টি প্রথমে নজরে আনে তুরস্কের জনপ্রিয় পত্রিকা হারিয়েত। এছাড়া বই জব্দ ও পুড়িয়ে ফেলার ছবি অনলাইনে প্রকাশ করেছে অনলাইন সংবাদমাধ্যম করোনস২৭।

ওয়েবসাইট টার্কি পার্জ জানায়, ২০১৬ সালে একটা গণিতের বই নিষিদ্ধ করা হয়েছিল কারণ একটি গণিত প্রশ্নে ‘এফ থেকে জি’ পয়েন্ট উল্লেখ করা হয়েছিল। কারণ ‘ফেতুল্লা গুলেন’ লিখতে ‘এফ’ ও ‘জি’ নির্দেশ করে। এছাড়া অনেক বইয়ে শুধুমাত্র ‘পেনসেলভেনিয়া’ থাকায় নিষিদ্ধ করা হয়েছে সেসব। কারণ গুলেন থাকেন যুক্তরাষ্ট্রের পেনসেলভেনিয়ায়। এছাড়া আস্কারায় গুলেন নামে যে সড়কের নামকরণ করা হয়েছিল তাও বদলে দেওয়া হয়েছে বলে তথ্য প্রকাশিত হয়েছে।

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।