নতুন বছরে ক্যালিফোর্নিয়ায় বৈধতা পেল গাঁজা


বিশ্ব টাইমস
Published: 2018-01-01 22:48:06 BdST | Updated: 2018-06-22 13:40:41 BdST

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়া অঙ্গরাজ্যে ১ জানুয়ারি থেকে 'বিনোদনের জন্য' গাঁজা সেবন বৈধ হচ্ছে। সোমবার বিবিসির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ১ জানুয়ারি থেকে ক্যালিফোর্নিয়ায় প্রাপ্তবয়স্ক ব্যক্তিরা (সর্বনিম্ন ২১ বছর) সর্বোচ্চ ২৮ গ্রাম পর্যন্ত গাঁজা সঙ্গে রাখতে পারবেন। শুধু তাই নয়, সেবনকারী চাইলে বাড়িতে ছয়টি পর্যন্ত গাঁজার গাছ লাগাতে পারবেন।

ক্যালিফোর্নিয়াসহ এ নিয়ে দেশটির ছয়টি অঙ্গরাজ্যে বিনোদনের জন্য গাঁজা সেবন বৈধতা পেল। অপর পাঁচটি রাজ্য হলো—কলোরাডো, ওয়াশিংটন, ওরেগন, আলাস্কা ও নেভাদা। এর মধ্য দিয়ে প্রতি পাঁচজনের মধ্যে একজন মার্কিন বৈধভাবে গাঁজা কেনার সুযোগ পাবেন।

যুক্তরাষ্ট্রে বিনোদনের জন্য গাঁজাকে বৈধতা দেওয়া অঙ্গরাজ্যগুলোর মধ্যে ক্যালিফোর্নিয়াই বৃহত্তম। রাজ্যটিতে চিকিৎসা বা ওষুধ হিসেবে গাঁজার ব্যবহার ১৯৯৬ সাল থেকে বৈধ।

সবশেষ মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের সময় ক্যালিফোর্নিয়ার বাসিন্দারা গাঁজার বৈধতা প্রশ্নে ভোটাভুটিতে অংশ নেয় এবং এর ফল বৈধ করার পক্ষেই আসে। এরপর এতদিন ধরে গাঁজা বিক্রি সংক্রান্ত নিয়মকানুন ও কর কাঠামো তৈরির কাজ চলে।

তবে এর বিরোধীরা বলছেন, এর ফলে গাঁজার নেশাগ্রস্ত অবস্থায় গাড়ি চালানো বেড়ে যাবে ও তরুণরা মাদক সেবন করতে শুরু করবে।

কিন্তু গাঁজার ব্যবসার সঙ্গে যুক্ত মহলগুলো মনে করছে, আগামী কয়েক বছরে একে কেন্দ্র করে শত শত কোটি ডলারের শিল্প গড়ে উঠবে। ধারণা করা হয়, কালোবাজারে ৫১০ কোটি ডলারের গাঁজার ব্যবসা হয়ে থাকে এবং বৈধতার পর ২০২১ সালের মধ্যে তা ৫৮০ কোটি ডলারের ব্যবসায় পরিণত হবে। বৈধ ক্রেতাদের কাছ থেকে কর পাওয়া যাবে বছরে অন্তত শত কোটি ডলার।

তবে জনসমাগমস্থলে গাঁজা সেবন করা যাবে না। এ ছাড়া কোনো স্কুলের ৩০০ মিটারের মধ্যে অথবা গাড়ি চালনার সময় গাঁজা সেবন করা যাবে না।

উল্লেখ্য, যুক্তরাষ্ট্রের ফেডারেল সরকার এখনও গাঁজাকে অবৈধ বলে মনে করে এবং একে হেরোইন বা কোকেনের মতো নিষিদ্ধ বস্তুর তালিকায় রেখেছে।

টিআই/ ০১ জানুয়ারি ২০১৮

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।