22258

গৃহকর্মীকে নির্যাতনকারী দম্পতির বিরুদ্ধে মামলা

গৃহকর্মীকে নির্যাতনকারী দম্পতির বিরুদ্ধে মামলা

2021-07-05 18:38:30

রাজধানীর তোপখানা রোডের একটি বাসায় ১২ বছরের এক গৃহকর্মীকে নির্যাতনের অভিযোগে গৃহকর্তা মো. তানভির আহসান ও তার স্ত্রী অ্যাডভোকেট নাহিদের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে।

সোমবার (৫ জুলাই) রাজধানীর শাহবাগ থানায় এ মামলা করেন গৃহকর্মীর বাবা শহিদ মিয়া। মামলা নম্বর ৪(৭)২১। শাহবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মওদুদ হাওলাদার মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে রোববার (৪ জুলাই) তাদের ঢাকা মহানগর হাকিম আদালতে হাজির করা হয়। এরপর ৫৪ ধারায় গ্রেফতার দেখিয়ে তাদের কারাগারে আটক রাখার আবেদন করেন তদন্ত কর্মকর্তা।

অন্যদিকে, তাদের আইনজীবীরা জামিনের আবেদন করেন। উভয়পক্ষের শুনানি শেষে ঢাকা মহানগর হাকিম শাহিনুর রহমান তাদের জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

শনিবার (৩ জুলাই) ওই বাসার এক প্রতিবেশী মেয়েটির শরীরে আঘাতের চিহ্নসহ কিছু ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে পোস্ট করেন। পোস্টে তিনি দ্রুত সহযোগিতা ও আইনি ব্যবস্থার আর্জি জানান। এরপর তাদের গ্রেফতার করে পুলিশ।

ছবিতে মেয়েটির চোখের নিচে আঘাতের চিহ্ন, হাতে গুরুতর জখম এবং আরেকটি ছবিতে মেয়েটির শরীরের পেছেন দিকে আগুনে পোড়া ঘা দেখা যায়। পোস্টটি চোখে পড়ে একটি বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেলের এক নারী সাংবাদিকের। তিনি পোস্টটি বাংলাদেশ পুলিশের মিডিয়া অ্যান্ড পাবলিক রিলেশন্স উইংকে পাঠিয়ে দ্রুত সহযোগিতার আহ্বান জানান।

পুলিশ সদর দফতরের এআইজি (মিডিয়া অ্যান্ড পাবলিক রিলেশন্স) মো. সোহেল রানা বলেন, ঘটনাস্থল কোন থানার অধীনে তা তাৎক্ষণিকভাবে নিশ্চিত না হওয়ায় মিডিয়া অ্যান্ড পাবলিক রিলেশন্স উইং বিষয়টি জানার সঙ্গে সঙ্গে রমনা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মনিরুল ইসলাম ও শাহবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মওদুত হাওলাদারের সঙ্গে যোগাযোগ করে এ বিষয়ে দ্রুত ব্যবস্থা নিতে নির্দেশনা দেয়া হয়।

উভয় থানা থেকেই ঘটনাস্থলে একটি করে টিম যায়। পরবর্তীতে জানা যায়, ঘটনাস্থলটি শাহবাগ থানার অধীনে। এরপর শাহবাগ থানার ওসি মওদুত হাওলাদারের তাৎক্ষণিক তৎপরতায় সেখানকার ইন্সপেক্টর (অপারেশন্স) মো. কামরুজ্জামানের নেতৃত্বে উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. জাহাঙ্গীর আলমসহ পুলিশের একটি টিম মেয়েটিকে উদ্ধার করে এবং নির্যাতনের অভিযোগে গৃহকর্তা মো. তানভির আহসান ও তার স্ত্রী অ্যাডভোকেট নাহিদকে গ্রেফতার করে।

এআইজি সোহেল রানা আরও বলেছিলেন, ফেসবুকে দেয়া পোস্টের মাত্র দেড় ঘণ্টার মধ্যে এবং বিষয়টি পুলিশের নজরে আসার এক ঘণ্টার মধ্যেই ভুক্তভোগীকে উদ্ধার ও অভিযুক্তদের গ্রেফতার করা হয়। অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন। এ বিষয়টি কোনো এক সচেতন নাগরিক ৯৯৯-কেও ফোন করে জানায়। পরে ৯৯৯ থেকেও থানার সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়।

সম্পাদক: ইসমাঈল হোসাইন রাসেল
যোগাযোগ: ক্যাম্পাস টাইমস
৪৩ শহীদ নজরুল ইসলাম সড়ক, হাটখোলা রোড, চৌধুরী মল, টিকাটুলি, ঢাকা-১২০৩
মোবাইল: ০১৬২৫ ১৫৬৪৫৫
ইমেইল:[email protected]