ফিল্মফেয়ার পুরস্কার পেলেন জয়া


ঢাকা | Published: 2021-04-02 07:59:34 BdST | Updated: 2021-04-11 12:59:01 BdST

২০১৯ সালের টালিউডের ছবি ‘বিজয়া’ ও ‘রবিবার’–এর জন্য জয় ফিল্মফেয়ার (বাংলা) পুরস্কারে সমালোচকের বিচারে সেরা অভিনেত্রীর পুরস্কার পেয়েছেন বাংলাদেশের জয়া আহসান। গতকাল বুধবার সন্ধ্যায় ভারতের কলকাতার একটি তারকা হোটেলে আয়োজন করা হয় এই পুরস্কার অনুষ্ঠানের। করোনা মহামারির কারণে গত বছরের অনুষ্ঠানটি এ বছর আয়োজন করা হয়েছে।

মাত্র এক সন্ধ্যা আগে আয়োজকদের কাছ থেকে কলকাতা ভ্রমণের আমন্ত্রণ আসে জয়ার কাছে। নিজের অভিনীত দুটি ছবির জন্য মনোনয়নের খবর যখন জানতে পারলেন, ততক্ষণে তিনি যেন কিংকর্তব্যবিমূঢ়। অনুষ্ঠানে যোগ দেওয়া হবে কি না, এ নিয়ে ছিল দোদুল্যমানতা। কোভিড টেস্টসহ নানা আনুষ্ঠানিকতা পেরিয়ে তিনি যে সেখানে যাবেন, সেটা নিশ্চিত হয়েছিলেন বিমানে চড়ার পর। গত সন্ধ্যায় কলকাতা থেকে জয়া প্রথম আলোকে বলেন, ‘পুরস্কৃত হওয়ায় অনেক খুশি হয়েছি। কিন্তু আমার চেয়ে বেশি খুশি হয়েছেন আমার এখানকার বন্ধু ও চলচ্চিত্রের মানুষেরা।’

গত মঙ্গলবার জয়া বলেছিলেন, আয়োজকেরা বারবার তাগাদা দিচ্ছিলেন, তাঁকে থাকতেই হবে। তাড়াহুড়ো করে করোনার নেগেটিভ রিপোর্ট হাতে পেলেন। অনেক কষ্টে বুধবার সকালের ফ্লাইটে উড়াল দিলেন কলকাতায়। সন্ধ্যার কলকাতায় ঝলমলে আয়োজনে তারকাদের মিলনমেলায় গিয়ে হাজির হন দুই বাংলার জনপ্রিয় অভিনেত্রী জয়া। সমালোচকদের রায়ে ফিল্মফেয়ার পুরস্কারে সেরা অভিনয়শিল্পী তিনি বিচারকদের নম্বরের দিক থেকে পেছনে ফেলেন ঈশা সাহা, রাইমা সেন, সোহিনী সরকার এবং শুভশ্রী গাঙ্গুলীর মতো অভিনয়শিল্পীদের।

বলিউডের ফিল্মফেয়ার পুরস্কার অনুষ্ঠিত হয় চলতি সপ্তাহেই, তারপর হলো টালিউডে। কলকাতার বাংলা ভাষার ছবিকে উৎসাহ দিতেও এই আয়োজন। এর আগে ২০১৮ সালে সেরা অভিনেত্রী হিসেবে জয়া আহসান এ পুরস্কার পান ‘বিসর্জন’ সিনেমায় অভিনয়ের জন্য। তারও আগে অরিন্দম শীল নির্মিত ‘ঈগলের চোখ’ ছবিতে অভিনয়ের জন্যও জয়া পেয়েছিলেন ফিল্মফেয়ার অ্যাওয়ার্ডে মনোনয়ন। ২০১৪ সালে একই পরিচালকের ‘আবর্ত’ ছবির জন্যও পেয়েছিলেন মনোনয়ন।

পুরস্কার পাওয়ার ব্যাপারে এই অভিনেত্রী বলেছিলেন, তিনি শিল্পীসত্তার ক্ষুধা মেটাতে কাজ করেন। পুরস্কার পেলে উচ্ছ্বসিত হন না, না পেলে বিমর্ষ হন না। তিনি বলেছিলেন, ‘দেশের বাইরে কাজ করে এ রকম একটা শক্ত প্রতিযোগিতায় কোনোভাবে আমার নামটা থাকছে, এটা অনেক বড় সম্মান। এ জন্য আমি কৃতজ্ঞতা জানাতে চাই, অবশ্যই আমার দেশের জনগণ, যাঁরা আমাকে তৈরি করেছেন, সব দর্শককেও। একই সঙ্গে আমার ভারতবর্ষের দর্শক ও অনুসারীকে, যাঁরা আমাকে কাজ করে নিজেকে প্রমাণের সুযোগ দিয়েছেন।’

অনুষ্ঠান শেষে কথা হয় জয়া আহসানের ‘রবিবার’ ছবির পরিচালক অতনু ঘোষের সঙ্গে। তাঁর ছবিটি সমালোচক বিভাগে সেরা ছবি নির্বাচিত হয়েছে। এর আগে দুইবার এই পরিচালকের দুটি ছবি ‘রূপকথা নয়’, ‘ময়ুরাক্ষী’ ফিল্মফেয়ারে সেরা ছবি নির্বাচিত হয়। কলকাতা থেকে ‘রবিবার’ ছবির পরিচালক অতনু ঘোষ বলেন, ‘খুব ভালো লাগছে। এর মধ্য দিয়ে আমরা যে ভিন্নধারার কাজের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি, সেখানে ফিল্মফেয়ারের এই পুরস্কার আমাদের জন্য মস্ত বড় অনুপ্রেরণার জায়গা। সেখান থেকে মনে হয়, সত্যিই এটা আমাদের জন্য আনন্দের সংবাদ।’

অভিনয়শিল্পী জয়া আহসানকে মূল্যায়ন করতে গিয়ে অতনু বলেন, ‘জয়ার বড় বিশেষত্ব হচ্ছে, অভিনয়ে বুঁদ হয়ে থাকেন। অনেক বেশি প্যাশনেট অভিনয়শিল্পী। এটা একজন অভিনয়শিল্পীর অনেক বড় গুণ। যতক্ষণ শুটিং হয়, তিনি নিবেদিতপ্রাণ থাকেন। দুই বাংলায় তিনি অসাধারণ সব কাজ আমাদের উপহার দেবেন। আমরা সবাই মুখিয়ে আছি তাঁর অসাধারণ সব কাজ দেখার আশায়।’

‘বিজয়া’ ছবিটি পরিচালনা করেছেন কৌশিক গাঙ্গুলি। ‘জ্যেষ্ঠপুত্র’ ছবির জন্য সেরা পরিচালকও হয়েছেন তিনি। ২০১৯ সালের ফিল্মফেয়ারে সেরা ছবি সৃজিত মুখোপাধ্যায় পরিচালিত ‘ভিঞ্চি দা’।