রাবি উপাচার্যের বাসভবনে ফের তালা


Rajshahi University | Published: 2021-05-02 15:49:22 BdST | Updated: 2021-05-14 06:48:36 BdST

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) ফাইন্যান্স কমিটির সভা বন্ধের দাবিতে উপাচার্য বাসভবনে তালা ঝুলিয়েছেন চাকরিপ্রত্যাশী বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রলীগের সাবেক ও বর্তমান কমিটির নেতাকর্মীরা।

রোববার (২ মে) সকাল ৯টায় উপাচার্যের বাসভবনে তালা লাগিয়ে দেন তারা।

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা গেছে, বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. এন আব্দুস সোবহানের মেয়াদ শেষ হচ্ছে আগামী ৬ মে। মেয়াদ শেষের আগে ফাইন্যান্স কমিটির সভা করা হয়। রোববার সকাল সাড়ে ১০টায় উপাচার্যের সভাপতিত্বে এ সভা অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল। সভা বন্ধ করতে তালা দিয়ে উপাচার্যের বাসভবনের সামনে অবস্থান নিয়েছেন ছাত্রলীগ ও স্থানীয় চাকরিপ্রত্যাশীরা।

জানা যায়, সকাল সোয়া ৯টায় ভবনের মূল ফটকে তালা লাগায় আন্দোলনকারীরা। এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত গেট তালাবদ্ধ ছিল। গেটের বাইরে ৩০ জন অবস্থান করছিলেন।

রাবি ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি ফারুক হাসান বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের বিরুদ্ধে বিভিন্ন ‘অনিয়মের’ অভিযোগ এনে গত বছর ডিসেম্বরে শিক্ষা মন্ত্রণালয় চিঠি দিয়েছিল। এতে তার দুর্নীতির সঙ্গে সংশ্লিষ্টতা স্পষ্ট। উপাচার্য তার মেয়াদের শেষ সময়ে এসে আজকের সভায় আরও বড় ধরনের ‘অনিয়ম’ করবেন বলে আমরা আশঙ্কা করছি। এজন্য আমরা মিটিং স্থগিতের দাবিতে অবস্থান নিয়েছি।

এসময় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক এম লুৎফর রহমানকে উদ্দেশ্য করে আন্দোলনকারীদের একজন বলেন, ‘আপনাদের সব শিক্ষককে, ভিসি আব্দুস সোবহান গ্রুপের সব শিক্ষককে এ দায় নিতে হবে। আমাদের সার্কুলারের টাকা ফেরত দিতে হবে’।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক লুৎফর রহমান বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের ফাইনান্স কমিটির সভা হওয়ার কথা ছিল। তবে এ পরিস্থিতির কারণে সভা স্থগিত করা হয়েছে। আন্দোলনকারীরা তালা দিয়ে বাইরে অবস্থান করছে। অবস্থানের কারণে কমিটির কেউ ভেতরে প্রবেশ করতে পারেনি। বাইরেও যেতে পারছেন না।

এছাড়া এসময় গেটের সামনে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও মূল্যবোধের বিশ্বাসী প্রগতিশীল শিক্ষক সমাজের দুর্নীতি বিরোধী শিক্ষকদের আহ্বায়ক অধ্যাপক ড. সুলতান উল ইসলাম, রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক একরাম উল্লাহসহ কয়েকজন শিক্ষক উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, এর আগে গত ১১ জানুয়ারি চাকুরির দাবিতে উপাচার্য ভবনে তালা লাগিয়েছিল চাকুরিপ্রত্যাশী ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা।