পিছু হটল জবি প্রশাসন, হল খোলা রাখার সিদ্ধান্ত


Desk report | Published: 2022-09-24 09:50:25 BdST | Updated: 2022-12-03 04:56:09 BdST

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) একমাত্র ছাত্রী হল বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব হল পূজার ছুটি, ঈদে মিলাদুন্নবী উপলক্ষে আগামী ১ অক্টোবর থেকে ৮ অক্টোবর পর্যন্ত বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল প্রশাসন৷ হল বন্ধ রাখার নোটিশ পেয়ে শিক্ষার্থীদের মাঝে ব্যাপক ক্ষোভের সৃষ্টি হয়। অবশেষে পিছু হটল বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। আরেক নোটিশে হল খোলা রাখার কথা জানানো হয়েছে।

শুক্রবার (২৩ আগস্ট) প্রভোস্ট অধ্যাপক ড. শামীমা বেগম স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানানো হয়। এর আগের নোটিশ বাতিল বলে গণ্য করা হয়।

এর আগে গতকাল বৃহস্পতিবার (২২ সেপ্টেম্বর) আরেক বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে পূজার ছুটিতে হল বন্ধ রাখার ঘোষণা দেয় কর্তৃপক্ষ। এতে শিক্ষার্থীদের মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়। এসময় শিক্ষার্থীরা টিউশনসহ বিভিন্ন কারণে বাড়ি যেতে ইচ্ছুক না হওয়ায় হলে থাকার আবেদন জানান। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ক্ষোভ প্রকাশ করেন তারা।

এ বিষয়ে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক তৃতীয় বর্ষের এক শিক্ষার্থী বলেন, এই দীর্ঘ সময় হল বন্ধ থাকলে ভোগান্তিতে পড়তে হবে। আমার পড়াশোনা এমনকি থাকা খাওয়ার সমস্ত খরচ টিউশনের ওপর নির্ভর করছে। একটা টিউশনও থাকবে না এই দীর্ঘ ছুটিতে। দ্রব্যমূল্যের এই ঊর্ধ্বগতিতে কোনোভাবেই ঢাকায় টিকে থাকা সম্ভব হবে না।

হলে থাকা দ্বিতীয় বর্ষের এক শিক্ষার্থী বলেন, আমাদের অনেকেই টিউশনি করিয়ে চলে। পূজার বন্ধ হলেও টিউশনের কোনো বন্ধ নেই। আবার হলে যারা থাকে সবার বাড়ির দূরত্বটা অনেক বেশি। যেখানে যাতায়াতে দেড় থেকে দুই হাজার টাকা লাগবে। এছাড়া ছুটির পরপরই সেমিস্টার ফাইনাল। সে ক্ষেত্রেও পড়াশোনার ক্ষতি হবে।

এ বিষয়ে কথা বলতে বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব হলের প্রভোস্ট অধ্যাপক ড. শামীমা বেগমকে একাধিক বার ফোন করলেও তাঁর সঙ্গে যোগাযোগ সম্ভব হয়নি।