নারী শিক্ষার্থীদের স্কলারশিপ দিচ্ছে ভিয়েনা ইউনিভার্সিটি


Dhaka | Published: 2021-10-11 11:26:29 BdST | Updated: 2021-10-16 01:45:22 BdST

নারী শিক্ষার্থীদের জন্য স্নাতকোত্তর করতে বৃত্তি দিচ্ছে অস্ট্রিয়ার ভিয়েনা ইউনিভার্সিটি অব টেকনোলজি। ‘হেলমুট ভেইথ স্টাইপেন্ড’ নামে দেয়া এই বৃত্তি নিয়ে বাংলাদেশসহ যে কোনো দেশের শিক্ষার্থীরা এই বিশ্ববিদ্যালয়ে কম্পিউটার সায়েন্সে পড়তে পারবেন।

আগামী ৩০ নভেম্বর পর্যন্ত শিক্ষার্থীরা এই বৃত্তির জন্য আবেদন করতে পারবেন। বৃত্তিটি পেলে দুই বছর মেয়াদী এই মাস্টার্স কোর্সে লাগবে না কোনো টিউশন ফি। এছাড়া বছরে পাওয়া যাবে প্রায় ৬ লক্ষ টাকার একটি উপবৃত্তি।

‘হেলমুট ভেইথ’ বৃত্তিটি ভিয়েনা সেন্টার ফর লজিক অ্যান্ড অ্যালগরিদমস (ভিসিএলএ) এবং ভিয়েনা ইউনিভার্সিটি অব টেকনোলজি এর সমন্বিত একটি উদ্যোগ। নারী শিক্ষার্থীদের কম্পিউটার বিজ্ঞানে আগ্রহী করে তুলতে প্রতিবছর এ বৃত্তিটি দেয়া হয়।

যার নামে নামকরণ এই বৃত্তিটির, সেই হেলমুট ভেইথ ছিলেন অস্ট্রিয়ার একজন নারী কম্পিউটার বিজ্ঞানী। কম্পিউটার সায়েন্সে অসামান্য অবদান রাখা এই নারী ছিলেন অস্ট্রিয়ার ভিয়েনা ইউনিভার্সটি ও টেকনোলজির কম্পিউটার সায়েন্স এর অধ্যাপক। ২০১৬ সালে মৃত্যুবরণ করেন গুণী এই নারী। কম্পিউটার বিজ্ঞান শিক্ষায় তার অবদানকে স্মরণীয় রাখতেই ‘হেলমুট ভেইথ স্টাইপেন্ড’ চালু করে ভিয়েনা ইউনিভার্সিটি অব টেকনোলজি।

নিম্নোক্ত বিষয়গুলোতে স্নাতকোত্তর করা যাবে:

• লজিক এন্ড কম্পিউটেশন
• বিজনেস ইনফরমেশন
• কম্পিউটার ইঞ্জিনিয়ারিং
• ডেটা সায়েন্স
• মিডিয়া এন্ড হিউম্যান সেন্টার্ড

সুবিধাসমূহ:

• বছরে ৬ হাজার ইউরো উপবৃত্তি দেয়া হবে। বাংলাদেশী টাকায় যার পরিমাণ প্রায় ৬ লক্ষ টাকা।
• ২ বছর পর্যন্ত এ উপবৃত্তি দেয়া হবে।
• টিউশন ফি মওকুফ করা হবে।

আবেদনের যোগ্যতা:

• নারী শিক্ষার্থী হতে হবে।
• কম্পিউটার সায়েন্স বা সমমানের বিষয়ে স্নাতক ডিগ্রি থাকতে হবে।
• কম্পিউটার সিকিউরিটি সম্পর্কিত ধারণা থাকতে হবে।
• ইংরেজিতে দক্ষতা স্কোর জমা দিতে হবে।

আবেদন প্রক্রিয়া:

অনলাইনের মাধ্যমে আবেদন করা যাবে। বিস্তারিত জানতে ক্লিক করুন এই লিংকে।

http://www.vcla.at/helmut-veith-stipend/