শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে প্রশাসনকে ধৈর্যের পরীক্ষা দিতে হয়: চবি উপাচার্য


CU Correspondent | Published: 2022-08-02 19:23:24 BdST | Updated: 2022-08-14 22:36:10 BdST

ছাত্রলীগের একাংশের অবরোধে টানা দুই দিন অচল ছিল চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় (চবি)। এ ঘটনায় প্রশাসনকে কার্যকর কোনও পদক্ষেপ নিতে দেখা যায়নি। তবে উপাচার্য অধ্যাপক ড. শিরীণ আখতার বলেছেন, ‘শিক্ষার্থীরা যেহেতু আন্দোলন করছে, হার্ডলাইনে গেলে পরিস্থিতি অন্যদিকে চলে যায়। এজন্য অসীম ধৈর্যের পরীক্ষা দিতে হয়। পুরো বিশ্ববিদ্যালয় অসুবিধায় পড়ে এমন সিদ্ধান্ত নিতে পারি না।’

মঙ্গলবার (২ আগস্ট) দুপুর ১টায় উপাচার্যের সম্মেলন কক্ষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন তিনি।

শাটল ট্রেনের লোকোমাস্টার অপহরণ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্ষয়ক্ষতির বিষয়ে এক প্রশ্নের জবাবে উপাচার্য বলেন, ‘রেলওয়ের কাছ থেকে খবর পেয়েছি, তারা কষ্ট পেয়েছেন। আমরা তদন্ত করে এর স্থায়ী সমাধানের চেষ্টা করবো। আজ-কালের মধ্যেই একটা তদন্ত কমিটি গঠন করা হবে। ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণও তখন জানা যাবে।’

তিনি আরও বলেন, ‘এখন থেকে শাটল ট্রেন ও শিক্ষক বাস চলাচল করবে। আগামীকাল থেকে পুরোদমে ক্লাস-পরীক্ষা চলবে।’

এ সময় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ড. রবিউল হাসান ভূঁইয়া বলেন, ‘একটা সংগঠনের কমিটিতে কে আসবে, কে আসবে না, এখানে বিশ্ববিদ্যালয়ের কোনও হাত নেই। তারপরও আমরা যোগাযোগ করেছি সব পক্ষের সঙ্গে। এজন্যই আন্দোলন প্রত্যাহার হয়েছে।’

তিনি বলেন, ‘শৃঙ্খলা বিরোধী কর্মকাণ্ডে জড়িতদের অতীতেও ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। আগামীতেও অব্যাহত থাকবে। এ ধরনের কাজে জড়িত থাকলে প্রশাসন কঠোর ব্যবস্থা নেবে।’

এদিকে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সদ্য ঘোষিত কমিটির পদবঞ্চিত নেতা-কর্মীরা আন্দোলন প্রত্যাহার করেছেন। দুপুরে এক সংবাদ সম্মেলনে এই ঘোষণা দেন।

এর আগে বেলা ১১টার দিকে এক ফেসবুক পোস্টে আন্দোলনরত পদবঞ্চিত ছাত্রলীগ কর্মীদের বিরুদ্ধে কঠোর হওয়া প্রয়োজন বলে মন্তব্য করেছিলেন শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল। এর পরই আন্দোলন স্থগিত করেন ছাত্রলীগ কর্মীরা।

প্রসঙ্গত, গত ৩১ জুলাই রাত সাড়ে ১২টার দিকে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের ৩৭৬ সদস্যের একটি কমিটি ঘোষণা করে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ। এতে সংগঠনটির সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় ও সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্যের সই রয়েছে। কমিটি ঘোষণার পরপরই বিক্ষোভ শুরু করেন পদবঞ্চিত ছাত্রলীগ নেতা-কর্মীরা।