বাংলা নববর্ষ অসাম্প্রদায়িক চেতনাকে জাগ্রত করে: খুবি ভিসি


Desk report | Published: 2022-04-14 16:45:17 BdST | Updated: 2022-12-03 05:48:26 BdST

খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. মাহমুদ হোসেন বলেছেন, বাংলা নববর্ষ অসাম্প্রদায়িক চেতনাকে জাগ্রত করে। সব ধর্মের মানুষের মধ্যে সৌহার্দ্যপূর্ণ সম্পর্ক গড়ে ওঠে। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্নের সোনার বাংলা বাস্তব রূপদানে কাজ করে চলেছেন প্রধানমন্ত্রী।

বৃহস্পতিবার (১৪ এপ্রিল) মঙ্গল শোভাযাত্রা শেষে সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।

ড. মাহমুদ হোসেন বলেন, নববর্ষ বাঙালি জাতির প্রাণের উৎসব। চিরায়ত এ উৎসবটি ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে উদযাপিত হয়। নববর্ষের কর্মসূচির মধ্যে মঙ্গল শোভাযাত্রা দেশ ছাড়িয়ে বিদেশেও প্রশংসিত। যা ইতোমধ্যে বিশ্ব ঐতিহ্য হিসেবে স্থান করে নিয়েছে।

শোভাযাত্রাটি বিশ্ববিদ্যালয়ের হাদী চত্বর থেকে শুরু হয়ে ক্যাম্পাসের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে। শোভাযাত্রায় নানা রঙের ফেস্টুন, ঘোড়া, পেঁচা, দোয়েলসহ বিভিন্ন জীবজন্তুর বর্ণিল সাজ ছিল নজরকাড়া। শোভাযাত্রা শেষে বাঙালির ঐতিহ্যগত লাঠিখেলা ও মোরগ লড়াই অনুষ্ঠিত হয়।

বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাস্কর্য ডিসিপ্লিনের চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী ইমন লস্কর বলেন, পহেলা বৈশাখ বাঙালির প্রাণের মেলা। দেশীয় সংস্কৃতির মিলন মেলা। এটি আমাদের শিকড়ের কাছে নিয়ে যায়। অসাম্প্রদায়িক চেতনাকে নতুন করে শানিত করে, প্রাণিত করে। তাই দেশকে এক সুতোয় বেঁধে রাখতে আমাদের অনুপ্রেরণা দেয় পহেলা বৈশাখ।