রুয়েটে প্রজেক্ট প্রদর্শনী প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়ন হাবিপ্রবি


Desk report | Published: 2023-12-03 19:59:46 BdST | Updated: 2024-03-04 20:44:04 BdST

ইলেক্ট্রিক্যাল এন্ড ইলেক্ট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং (ইইই) ডে উপলক্ষ্যে রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (রুয়েট) আয়োজিত প্রজেক্ট প্রদর্শনী প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়ন হয়েছে দিনাজপুরের হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের টিম ‘এইচএসটিইউ টেক টাইটানস’।

শনিবার (২ ডিসেম্বর) রুয়েটের ইইই বিভাগ আয়োজিত এ প্রতিযোগিতার পুরষ্কার বিতরণ করা হয়। আন্ত:বিশ্ববিদ্যালয় প্রজেক্ট প্রদর্শনী প্রতিযোগিতায় বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রায় ৪৭টি টিম অংশ নেয়। প্রতিযোগিতায় হাবিপ্রবির টিম টেক টাইটানসের হয়ে অংশ নেয় ইসিই ২১ ব্যাচের শিক্ষার্থী ইরফান নাভিল, ফারিয়া গুলশান ও মুক্তি খান। তাদের প্রজেক্টের নাম ছিলো Sumz.Al।

দলটির প্রতিযোগীরা জানান তাদের প্রজেক্টটি ছিলো মুলত আর্টিফিশিয়াল ইন্টিলিজেন্স বেইজড আর্টিকেল সামারাইজার। একটি ওয়েবসাইটের ইউআরএল লিংক এই Saas (Software as a Service) এ দিলে তা সামারাইজ করে দেয়। সাধারণত চ্যাটজিপিটি অথবা অন্য কোনো এআই চ্যাটবট কোনো ইউআরএল ব্যাবহার করে তার ওয়েবপেইজে থাকা ওপেন সোর্স আর্টিকেলকে সামারাইজ করতে পারে না। তবে তাদের উদ্ভাবিত প্রজেক্টের মাধ্যমে এজাতীয় সমস্যার সমাধান করতে সক্ষম হয়েছেন বলে জানান তারা।

প্রতিযোগীরা আরও জানান, তাদের এই এআই সফটওয়্যার এর মূল উদ্দেশ্য হচ্ছে শিক্ষক, ছাত্র, গবেষকদের রিসার্চের কাজে সহায়ক হিসেবে কাজ করা। সাধারণত রিসার্চ করার আগে যেকোনো একটি বিষয়ের উপর অনেক আর্টিকেল পড়তে হয়। কিন্তু এই ডিজিটাল মার্কেটিং এর যুগে মেটা ডেটা এক্সট্র‍্যাকশন এর কারণে অনলাইনে অপ্রয়োজনীয় অসংখ্যক ডাটা থাকে যা মূলত ক্লিক বাইটিং ট্র‍্যাপ। যা আমাদের রিসার্চে পার্থক্য ক্রিয়েট করে। এই সফটওয়্যারটি সব সময় মূল উপাত্তটি দেয়। ধারণা করা হচ্ছে এই প্রতি আর্টিকেলে ৬ মিনিট করে সময় সাশ্রয় হয়। যা রিসার্চ এর ক্ষেত্রে ইফিসিয়েন্সি বাড়িয়ে দেয়।

প্রতিযোগী ইরফান বলেন, আমরা আমাদের বিভাগ ও ক্লাবের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি। আসলে RUET এর EEE Day তে নিজের ইউনিভার্সিটিকে প্রতিনিধিত্ব করতে পেরে অনেক ভালো লাগছে। মুক্তি খানের কণ্ঠেও একই সুর। তিনি বলেন, এই প্রথম ক্যাম্পাসের বাইরে প্রজেক্ট নিয়ে কোনো প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করা। পুরষ্কার জিতে যাবো আশা ছিলো কিন্তু চ্যাম্পিয়ন হবো এটা ভাবিনি। খুশি এবং ভালোলাগার সাথে অনেক অভিজ্ঞতার সঞ্চয় হয়েছে যা আমাকে পরবর্তী কাজের অনুপ্রেরণা যোগাবে। টিমের আরেক সদস্য ফারিয়া গুলশান বলেন, নিজের ক্যাম্পাসকে রিপ্রেজেন্ট করতে ভালো লাগছিল। প্রায় দেড় মাসের পরিশ্রমের ফল। এধরনের প্রতিযোগিতা আমাদের অভিজ্ঞতা বাড়ায়।

//