নৈতিকতা ও সততাই সত্যিকারের স্মার্টনেস: নোবিপ্রবি উপাচার্য


Desk report | Published: 2023-12-06 19:27:57 BdST | Updated: 2024-03-04 20:01:56 BdST

নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (নোবিপ্রবি) উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. দিদার-উল-আলম বলেছেন, নৈতিকতা ও সততাই সত্যিকারের স্মার্টনেস। অর্থাৎ যিনি সততা ও নৈতিকতার মানদণ্ডে উত্তীর্ণ হবেন, তিনিই সত্যিকারের স্মার্ট নাগরিক হিসেবে বিবেচিত হবেন। চারপাশে ব্যাপক হারে অবকাঠামোর উন্নয়ন হলেও মনুষ্যত্বের উন্নয়ন তেমন হচ্ছে না। এ বিষয়ে আমাদের সচেতন হতে হবে।

বুধবার (৬ ডিসেম্বর) বিশ্ববিদ্যালয়ের অডিটোরিয়াম ভবনে ‘অভিযোগ প্রতিকার ব্যবস্থা ও জিআরএস সফটওয়্যার’ বিষয়ক সেমিনার অনুষ্ঠানে উপাচার্য এ সব কথা বলেন।

ইউজিসি সচিব ড. ফেরদৌস জামান বলেন, বর্তমানে একটি যুগান্তকারী পদক্ষেপ হলো এপিএ বা বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তি। এর পাঁচটি শাখার মধ্যে অভিযোগ প্রতিকার ব্যবস্থা হলো একটি। এপিএতে বর্ণিত লক্ষ্যসমূহ অর্জনর মাধ্যমে বিশ্ববিদ্যালয়গুলো সামনের দিকে এগিয়ে যেতে পারবে।

এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন- উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. দিদার-উল-আলম। আইকিউএসির পরিচালক অধ্যাপক ড. ফিরোজ আহমেদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ আব্দুল বাকী, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. নেওয়াজ মোহাম্মদ বাহাদুর, বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের (ইউজিসি) সচিব ড. ফেরদৌস জামান ও নোবিপ্রবি রেজিস্ট্রার জনাব মোহাম্মদ জসীম উদ্দিন। অনুষ্ঠানে রিসোর্স পার্সন হিসেবে ভার্চুয়ালি যুক্ত ছিলেন ইউজিসির উপ-পরিচালক জনাব মৌলি আজাদ। বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন দফতরের ৭০ জন কর্মকর্তা এই সেমিনারে অংশগ্রহণ করেন।

//