শর্তসাপেক্ষে হলে থাকতে পারবেন আলিয়া মাদরাসার শিক্ষার্থীরা


Desk report | Published: 2022-01-06 08:44:29 BdST | Updated: 2022-01-18 18:36:57 BdST

অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণার পর শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের মুখে শুধুমাত্র পরীক্ষার্থীদের জন্য হল খুলে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকারি মাদরাসা-ই-আলিয়া প্রশাসন।

বুধবার (৫ জানুয়ারি) রাতে মাদরাসার অধ্যক্ষ প্রফেসর মো. আলমগীর রহমান ও আল্লামা কাশগরী (রহ.) হল ও ইব্রাহীম হলের সুপার বাংলা বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মো. জাহাঙ্গীর আলম সই করা সংশোধিত নোটিশে বিষয়টি জানানো হয়।

এতে বলা হয়, শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনা মোতাবেক আল্লামা কাশগরী (রহ.) হল ও ইব্রাহীম হলে ফাজিল স্নাতক (পাস) পরীক্ষা-২০২০ এর পরীক্ষার্থী ছাড়া অন্য কোনো শিক্ষার্থী অবস্থান করতে পারবে না।

এছাড়া হলের বৈধ শিক্ষার্থী প্রমাণের জন্য পরীক্ষার্থীদের ফরম পূরণের রশিদের ফটোকপিসহ অধ্যক্ষের কাছে আবেদন জমা দিতে হবে এবং সরকারি কাজে কোনো প্রকার বাধা না দেওয়ার অঙ্গীকারনামা দিতে হবে বলেও এতে জানানো হয়।

মূলত মাদরাসা হলের সীমানায় অবস্থিত প্রধান হল সুপার এবং সহকারী হল সুপারের বাসভবন ভেঙে কারিগরি ও মাদরাসা শিক্ষা অধিদফতরের ভবন নির্মাণ করার উদ্যোগের প্রেক্ষিতে শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের মুখে মঙ্গলবার (৪ জানুয়ারি) অনির্দিষ্টকালের জন্য মাদরাসা বন্ধ ঘোষণা করা হয়। এরপর বুধবার সকালে মাদরাসার দুটি আবাসিক হলও পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত বন্ধ ঘোষণা করে বিকেল ৪টার মধ্যে শিক্ষার্থীদের হল ছাড়ার থেকে নির্দেশ দেওয়া হয়। এরপর সারা দিনের আন্দোলনের মুখে সন্ধ্যায় সংশোধিত নোটিশে পরীক্ষার্থীদের জন্য হল উন্মুক্ত করা হয়।

তবে শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত কোনো শিক্ষার্থীই হল ছেড়ে যাননি।

এ বিষয়ে জানতে হল সুপার মো. জাহাঙ্গীর আলমের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যোগাযোগের পরামর্শ দেন।