সাংবাদিক শামসুজ্জামানকে নিঃশর্ত মুক্তি দিতে ঢাবিতে মানববন্ধন


DU Correspondent | Published: 2023-03-31 00:45:44 BdST | Updated: 2024-05-20 15:14:00 BdST

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিল, সাংবাদিক শামসুজ্জামানের নিঃশর্ত মুক্তি এবং র‌্যাব হেফাজতে নারীর মৃত্যুর ঘটনায় দোষীদের বিচারের দাবিতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে (ঢাবি) বিক্ষোভ মিছিল করেছে গণতান্ত্রিক ছাত্রজোট।

বৃহস্পতিবার (৩০ মার্চ) বেলা ১২টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় এই বিক্ষোভ মিছিল করে প্রগতিশীল ও গণতান্ত্রিক ছাত্র সংগঠনের সমন্বয়ে গঠিত সংগঠনটি। মিছিলটি মধুর ক্যান্টিন থেকে শুরু হয়ে এফবিএস অনুষদ, অপরাজেয় বাংলা দিয়ে সেন্ট্রাল মসজিদ ঘুরে রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশে এক সংক্ষিপ্ত সমাবেশের মাধ্যমে সমাপ্ত হয়।

এ সময় বিক্ষোভ মিছিল পরবর্তী সংক্ষিপ্ত সমাবেশে বক্তব্য রাখেন গণতান্ত্রিক ছাত্র কাউন্সিলের সভাপতি ও গণতান্ত্রিক ছাত্র জোটের সমন্বয়ক ছায়েদুল হক নিশান। তিনি বলেন, রাষ্ট্রের ভাত দেওয়ার মুরোদ নেই, কিল মারার গোঁসাই। রাষ্ট্র যখন ফ্যাসিবাদী হয় তখন তার কাছে কোনো গণতান্ত্রিক প্রতিবাদই সহ্য হয় না।

তিনি বলেন, র‍্যাব হেফাজতে সুলতানা জেসমিনের মৃত্যুর ঘটনায় বিচারবিভাগীয় তদন্ত করে দোষীদের শাস্তি নিশ্চিত করতে হবে। তার সন্তানের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে হবে। সাংবাদিক শামসুজ্জামানকে নিঃশর্তে মুক্তি দিতে হবে। মানুষের মতপ্রকাশের জন্য হুমকি ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনসহ সকল কালাকানুন বাতিল করতে হবে। এছাড়া তার বক্তব্যে জনগণকে জিম্মি করে নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসে দাম কমানোর দাবিও জানান তিনি।

বিপ্লবী ছাত্র মৈত্রীর সাধারণ সম্পাদক দিলীপ রায় বলেন, দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতির বাজারে সাধারণ মানুষের ব্যাগ ফাঁকা থাকলেও শেখ হাসিনার অনুগতরা ঠিকই ব্যাগ ভরে বাসায় ফেরেন। স্বাধীনতার ৫২ বছরে পরাধীনতা ছাড়া সাধারণ মানুষ কিছুই পায়নি। যতটুকু পেয়েছে শেখ হাসিনার অনুগতরা। জেলে তিনবেলা খাবারের ব্যবস্থা থাকলেও এই বৃহৎ জেলখানায় তিনবেলা খাবার নেই। এই তিনবেলা খাবারের সন্ধান করতে মানুষকে অমানুসিক পরিশ্রম করতে হয়।

বাংলাদেশ ছাত্র ফেডারেশনের সভাপতি মিতু সরকার বলেন, সাদা পোশাকে কাউকে বাসা থেকে তুলে নিয়ে গ্রেফতার করা, গ্রেফতারের পূর্বেই তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা, উচ্চ রক্তচাপে মানুষকে হত্যা করা বা বিরোধী মতকে দমন করতে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে লেলিয়ে দেওয়া সংবিধানের কোনো আইনে বলা না থাকলেও এটা ফ্যাসিবাদী সরকারের চরিত্র।

তিনি বলেন, আজকে সাধারণ মানুষ জানে চাল, ডাল, মাছ ও মাংসের দাম কত। প্রথম আলোর নিউজে দেওয়া বক্তব্য শুধু সেই দিনমজুরের নয়, এটা সারাদেশের আপামর জনসাধারণের কথা। বর্তমানে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের নামে মানুষের স্বাধীনতা রোধ করা হচ্ছে, মানুষের কণ্ঠ বাজেয়াপ্ত করা হচ্ছে, মানুষকে রাতের আঁধারে গুম করে ফেলা হচ্ছে। সেজন্য এই সাংবাদিকের গ্রেফতারের বিরুদ্ধে, ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের বিরুদ্ধে, দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতির বিরুদ্ধে আন্দোলনের ন্যায় সবাইকে রুখে দাঁড়ানোর আহ্বান ব্যক্ত করেন তিনি।

বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়নের সংগঠক তামজিদ হায়দার চঞ্চলের সঞ্চালনায় বিক্ষোভ সমাবেশে আরও বক্তব্য রাখেন, সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্টের সাধারণ সম্পাদক রাফিকুজ্জামান ফরিদ ও বৃহত্তর পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের সাধারণ সম্পাদক অমল ত্রিপুরা।