মেডিকেলে বিদেশি শিক্ষার্থীদের ভর্তি বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ


Desk report | Published: 2024-01-06 11:09:40 BdST | Updated: 2024-07-24 06:02:17 BdST

২০২৩-২৪ শিক্ষাবর্ষে দেশের মেডিকেল কলেজগুলোয় এমবিবিএস ভর্তিতে বিদেশি শিক্ষার্থীদের আবেদনের প্রজ্ঞাপন জারি করেছে স্বাস্থ্য শিক্ষা অধিদপ্তর (ডিজিএইচই)। বৃহস্পতিবার (০৪ জানুয়ারি) স্বাস্থ্য শিক্ষা অধিদপ্তর এ সংক্রান্ত একটি প্রজ্ঞাপন জারি করে সংশ্লিষ্ট দেশসমূহের বাংলাদেশ দূতাবাসকে অবহিত করেছে। ০৪ জানুয়ারি থেকে শুরু হওয়া এ আবেদন চলবে আগামী ২৯ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত।

প্রজ্ঞাপনে জানানো হয়েছে, দেশের সরকারি মেডিকেল কলেজগুলোয় বিদেশি শিক্ষার্থীদের জন্য মোট ২২১টি আসন সংরক্ষিত (কোটা) রাখা হয়েছে। এর মধ্যে সার্কভুক্ত দেশের শিক্ষার্থীদের জন্য ১১৭টি আসন, সার্কের বাইরের দেশগুলোর জন্য ৯৯টি এবং বাংলাদেশ সরকার কর্তৃক সংরক্ষণ করা হয়েছে মোট ৫টি আসন।

এছাড়াও দেশের মোট ৬৬টি বেসরকারি মেডিকেল কলেজে ৪৫ শতাংশ হিসেবে ২ হাজার ৫৫১টি আসন সংরক্ষণ করা রয়েছে বিদেশি শিক্ষার্থীদের জন্য। তবে এসব আসনে বিদেশি শিক্ষার্থীরা ভর্তি না হলে সুযোগ পাবেন দেশীয় শিক্ষার্থীরা। বাংলাদেশের বাইরের শিক্ষার্থীরা দেশের মেডিকেল কলেজগুলোয় আবেদনের পর দেশীয় সংস্থাগুলো তাদের আবেদন বিবেচনার প্রেক্ষিতে ভর্তির সুযোগ প্রদান করে।

বর্তমানে ভারত, নেপাল, যুক্তরাষ্ট্র, রাশিয়া, ভুটান, পাকিস্তান এবং শ্রীলঙ্কার মতো দেশগুলো থেকে বাংলাদেশে চিকিৎসা বিদ্যায় উচ্চশিক্ষার জন্য আসেন শিক্ষার্থীরা। দেশের বাইরে থেকে আসা এসব শিক্ষার্থীকে প্রচলিত ভর্তি প্রক্রিয়ার বাইরে রেখে শিক্ষাগ্রহণের সুযোগ দেয় সরকার। সেক্ষেত্রে তাদের পূর্বের ফলাফলের সমতা-বিধান করে সংশ্লিষ্ট সংস্থাগুলো। বিদেশি শিক্ষার্থীদের আবেদনের প্রেক্ষিতে নির্বাচিত শিক্ষার্থীদের তালিকা প্রকাশ করে স্বাস্থ্য শিক্ষা অধিদপ্তর।

অধিদপ্তরের তথ্য বলছে, দেশের ৬৬টি বেসরকারি মেডিকেল কলেজে মোট আসন রয়েছে ৬ হাজার ৩৪৮টি। দেশের বেসরকারি মেডিকেলের এসব আসনে দেশী শিক্ষার্থীদের জন্য রয়েছে (দরিদ্র কোটাসহ) ৩ হাজার ৬৫৭টি এবং বিদেশি শিক্ষার্থীদের জন্য ৪৫ শতাংশ কোটা হিসেবে আসন রয়েছে ২ হাজার ৫৫১টি।

অন্যদিকে দেশে এ বছর সাধারণ শিক্ষার্থীদের জন্য মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে আগামী ৯ ফেব্রুয়ারি। মেডিকেল কলেজে ভর্তিতে ন্যূনতম ৪০ নম্বর পেতে হবে শিক্ষার্থীদের। এতে শিক্ষার্থীদের কলেজ পরিবর্তন তথা মাইগ্রেশনের সুযোগ রাখা হয়েছে তিনবার। এছাড়াও শিক্ষার্থীরা তাদের পছন্দের তালিকায় রাখতে পারবেন সরকারি ও বেসরকারি কলেজগুলোকে। একই নিয়ম অনুসরণ করা হবে সরকারি ও বেসরকারি মেডিকেল কলেজে ভর্তির ক্ষেত্রে। আর বেসরকারি মেডিকেল ভর্তিতে বিগত বছরের মতো এবারও অটোমেশন প্রক্রিয়া অনুসরণ করবে স্বাস্থ্য শিক্ষা অধিদপ্তর।

মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষায় ভালো ফলাফলের ভিত্তিতে সামনের সারিতে থাকা শিক্ষার্থীরা মেধার মাপকাঠিতে পাবেন সরকারি মেডিকেল কলেজসমূহে ভর্তির সুযোগ। এর বাইরে ন্যূনতম পাশ নম্বর প্রাপ্তির ভিত্তিতে দেশের প্রচলিত ৬৬টি বেসরকারি অনুমোদিত কলেজে ভর্তি হতে পারবেন শিক্ষার্থীরা। এসব মেডিকেলে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের নির্ধারিত ১৯ লাখ ৪৪ হাজার টাকায় ভর্তি হওয়ার সুযোগ পাবেন দেশীয় শিক্ষার্থীরা।