‘ঢাকা কলেজ ছাত্রলীগ করোস’ বলেই ২ নেতাকে বেধড়ক মারধর


Desk report | Published: 2023-09-14 16:10:43 BdST | Updated: 2024-06-17 03:41:24 BdST

ঢাকা কলেজ ছাত্রলীগের দুই নেতা কাউসার হাসান কায়েস ও সাব্বির হোসাইনকে বেধড়ক মারধরের ঘটনা ঘটেছে। বুধবার দিবাগত রাত ৩টার দিকে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

আহত দুজনকে তাৎক্ষণিকভাবে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়। এর মধ্যে সাব্বিরকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ছেড়ে দেওয়া হয়। তবে গুরুতর আহত কাউসারকে উন্নত চিকিৎসার জন্য একটি বেসরকারি হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

কাউসারের মাথায় ও চোখে এবং সাব্বিরের মাথায়, ঘাড়ে ও হাতে জখমের চিহ্ন রয়েছে বলে হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে।

আহত ছাত্রলীগ নেতা কাউসার বলেন, রাতে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের জরুরি বিভাগের গেট সংলগ্ন আমতলী গেটের সামনে দিয়ে বের হওয়ার সময় একটি মোটরসাইকেল আমাদের সামনাসামনি হয়। আমাদের বাইকের সামনে এসে তারা বলে নেশা করেছিস নাকি। এ সময় তারা আমাদের গালমন্দ করতে থাকে।

তিনি আরও বলেন, এরপর আমরা সেখান থেকে চলে আসি। কিন্তু ক্যাম্পাসে (ঢাকা কলেজে) ফেরার পথে শহীদ মিনার এলাকায় পৌঁছানোর পর চারটি বাইক আমাদের পথ গতিরোধ করে। বাইক থেকে নেমে পথ গতিরোধ করার কারণ জানতে চাইলে তারা আমাদের ফের গালমন্দ করতে থাকে। এ সময় ‘কে তোরা? ঢাকা কলেজ ছাত্রলীগ করোস, তাই না?’ বলে আমাদের ওপর হামলা চালায়। পরে শহীদ মিনার এলাকায় কর্তব্যরত পুলিশ এগিয়ে আসলে হামলাকারীরা পালিয়ে যায়।

কাউসারের দাবি, পূর্বপরিকল্পিতভাবে তাদের ওপর এ হামলা চালানো হয়েছে। হামলাকারী প্রত্যেকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী।

এদিকে ঘটনার পরপরই ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ছুটে আসেন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক শেখ ওয়ালী আসিফ ইনান। তিনি বলেন, মূলত, ঢাকা মেডিকেল মোড়ে চা পান করার সময় এই হামলার ঘটনা ঘটেছে। আহত দুজন বেশ জখম হয়েছেন। সঙ্গে সঙ্গে তাদের চিকিৎসার ব্যবস্থা করেছি।

কারা হামলা করেছে জানতে চাইলে ইনান বলেন, বিষয়টি প্রাথমিকভাবে বলতে পারছি না। এটি সকালে (আজ) খতিয়ে দেখব। আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকেও অবগত করব যেন হামলাকারীদের খুঁজে বের করে আইনের আওতায় আনা হয়।

ছাত্রলীগের কেউ এই ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকলে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও জানান তিনি।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা এ ঘটনার সঙ্গে জড়িত এমন অভিযোগের ব্যাপারে তিনি বলেন, কারা হামলা করেছে সেটি এখনও আমার জানা নেই।