রাবির ভর্তি পরীক্ষায় জালিয়াতির অভিযোগে আটক ৩


RU Correspondent | Published: 2023-05-30 23:47:35 BdST | Updated: 2024-07-15 01:37:13 BdST

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) স্নাতক (সম্মান) প্রথম বর্ষের ভর্তি পরীক্ষায় প্রক্সি দিতে আসা তিনজনকে আটক করেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

মঙ্গলবার (৩০ মে) সকাল ৯টায় ‘এ’ ইউনিটের প্রথম শিফট ও বেলা ১১টায় দ্বিতীয় শিফটে প্রক্সি দিতে এলে তাদের আটক করা হয়।

বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ প্রশাসক অধ্যাপক ড. প্রদীপ কুমার পাণ্ডে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

আটককৃতরা হলেন- মো. হোসাইন, মো. স্বপন হোসাইন ও আব্দুর রাকিব।

মো. হোসাইন কুষ্টিয়া ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় থানার আফজালপুরের কাওছার হোসেনের ছেলে। তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের জগদীশ চন্দ্র বসু একাডেমিক ভবনে ৪২৪নং কক্ষের মো. জাহিদ আল হাসান সিয়ামের (রোল- ২১৬০২) হয়ে প্রক্সি দেন।

অন্যদিকে মো. স্বপন নওগাঁর বদলগাছি থানার চকগপিনাথ গ্রামের মোজাম্মেল হোসাইনের ছেলে। তিনি রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী। তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের কৃষি অনুষদ ভবনের ১৩৫ নম্বর কক্ষে তানভীর আহমেদ নামে (রোল- ২৪০৯৬) এক পরীক্ষার্থীর পরিবর্তে পরীক্ষা দেওয়ার সময় আটক হন।

মো. আব্দুর রাকিব (রোল- ৪০৯৪৩) জয়পুরহাটের কালায় থানার উত্তর পাকুরিয়া গ্রামের মো. গোলাম মোস্তফার ছেলে। তিনি স্যার জগদীশ চন্দ্র বসু একাডেমিক ভবনে ৩৩৭নং কক্ষে নিজের ছবি পরিবর্তন করে পরীক্ষা দিতে এসে আটক হন।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. আসাবুল হক বলেন, আজকে প্রক্সি কান্ডে তিনজনকে আটক করা হয়েছে। পরে তাদেরকে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর হাতে সোপর্দ করা হয়। তাদেরকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় নেওয়া হয়েছে।

রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশের ডেপুটি কমিশনার বিজয় বসাক বলেন, রাবির ভর্তি পরীক্ষা যেন সুষ্ঠুভাবে হয় সেজন্য আমরা কাজ করছি। আজকে যে প্রক্সি কান্ডে তিনজনকে আটক করা হয়েছে তাদের পেছনে বড় একটি গ্রুপ কাজ করছে। এদেরকে জিজ্ঞাসাবাদ করে বাকি সদস্যদের আটকের চেষ্টা করবো।