আবাসন ব্যবস্থার নামে ঘৃণ্য ব্যবসা বন্ধ করতে রাবিতে অবস্থান কর্মসূচি


Shoeb Shuvro | Published: 2024-03-03 20:46:51 BdST | Updated: 2024-04-14 20:35:43 BdST

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে (রাবি) ভর্তি পরীক্ষাকে কেন্দ্র করে প্রতিবছরই আবাসন ব্যবস্থা নামে ঘৃণ্য ব্যবসা পরিলক্ষিত হচ্ছে। মেস মালিক সমিতির দৌরাত্ম্য ও আবাসন ব্যবস্থার নামে ভর্তি পরীক্ষার্থীদের থেকে হাজার হাজার টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগে অবস্থান কর্মসূচি পালন করেছে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা।

রোববার (৩ মার্চ) বেলা ১২টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্যারিস রোডে স্টুডেন্ট রাইটস অ্যাসোসিয়েশন (এসআরএ) আয়োজনে এ অবস্থান কর্মসূচি পালন করা হয়।

এসময় নেতৃবৃন্দরা বলেন, ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীদের সেবার নামে একরাত থাকার জন্য দুই থেকে তিন হাজার টাকা নেওয়া কখনোই কাম্য নয়। বিশ্ববিদ্যালয়ের সুনাম নষ্ট হবে এমন কোন কাজ আমরা করতে দিবো না। মেস মালিক, শিক্ষক-শিক্ষার্থীসহ যারাই এমন কাজের সাথে জড়িতে থাকবে, তাদের বিরুদ্ধে সামাজিক আন্দোলন গড়ে তুলে তাদেরকে বয়কট করা হবে বলে জানান তারা।

সংগঠনটির সাধারণ সম্পাদক ফাহিম রেজার সঞ্চালনায় অনিক আহমেদ বলেন, আমাদের জন্য ইদ দুটি হলেও রাজশাহীবাসীর জন্য ইদ তিনটি। রোজার ইদ, কুরবানির ইদ ছাড়াও ভর্তি পরীক্ষা তাদের জন্য আরেকটি ইদ। তারা ভর্তি পরীক্ষাকে কেন্দ্র করে শিক্ষার্থীদের রক্ত চুষে খাচ্ছে। প্রতিবছর প্রায় ২ লক্ষ শিক্ষার্থী পরীক্ষা দিতে আসে। এই সময় বিশ্ববিদ্যালয়ের আশপাশের মেস মালিকরা শুরু করে রমরমা আবাসন ব্যবসা। এই ব্যবসার সাথে আমাদের বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরাও জড়িত। মেস মালিক সমিতির সাথে আলোচনা করে এমন হয়রানি বন্ধ করতে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেন তিনি।

মানববন্ধনে প্রথম আলো বন্ধুসভার সাবেক সভাপতি মেহেদি হাসান বলেন, বাংলাদেশে ৫০টির অধিক পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় রয়েছে কিন্তু দুর্ভাগ্যজনকভাবে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা আবাসন ব্যবসার সাথে জড়িত হয়েছে। যা সাধারণ শিক্ষার্থীদের লজ্জায় ফেলেছে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আমরা দেখতে পাচ্ছি কিভাবে আমাদের বিশ্ববিদ্যালয়ের দুর্নাম ছড়াচ্ছে। কতিপয় সুবিধাবাদীর জন্য সাধারণ শিক্ষার্থীরা লজ্জিত হচ্ছে। আমরা সাময়িকভাবে তাদেরকে বয়কট করার মাধ্যমে এর প্রতিবাদ জানাচ্ছি।

এছাড়া স্টুডেন্ট রাইটস অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মেহেদী সজিব বলেন, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় একটি গৌরবের জায়গা কিন্তু সেই গৌরবের জায়গাটি আজ ধ্বংসের পথে। আবাসন ব্যবস্থা আর মেস মালিকদের দৌরাত্ম্যের ফলে বিশ্ববিদ্যালয়ের সুনাম নষ্ট হচ্ছে। একইসাথে কতিপয় শিক্ষক-শিক্ষার্থীও এর সাথে জড়িত। আমরা চাইনা আবাসন ব্যবস্থা নামে এই ঘৃণ্য ব্যবসা চালু থাকুক। অবিলম্বে আমাদের সামাজিক আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে একই সাথে ছাত্র-শিক্ষক যেই হোক না কেনো আবাসন ব্যবসায়ীদের বয়কট করতে হবে।

এসময় সংগঠনের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতৃবৃন্দসহ শতাধিক শিক্ষার্থী অবস্থান কর্মসূচিতে উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে ২০২৩-২৪ শিক্ষাবর্ষে স্নাতক (সম্মান) প্রথম বর্ষের ভর্তি পরীক্ষা আগামী মঙ্গলবার (৫ মার্চ) থেকে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। 'এ', 'বি', ও 'সি' তিনটি ইউনিটে অনুষ্ঠিত এ ভর্তি পরীক্ষা চলবে ৭ মার্চ পর্যন্ত। মোট আবেদন জমা পড়েছে ১ লাখ ৮৫ হাজার ৫০০টি। এবার মোট আসন রয়েছে ৩ হাজার ৯০৪টি। প্রতি আসনের বিপরীতে আবেদন জমা পড়েছে ৪৮টি।