বছরে ৩০ নারী শিক্ষার্থীকে বৃত্তি দেবে এফবিসিসিআই


Desk report | Published: 2022-09-10 23:18:31 BdST | Updated: 2022-10-01 02:05:17 BdST

দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলের সুবিধাবঞ্চিত নারী শিক্ষার্থীদের উচ্চ শিক্ষায় শিক্ষিত করতে প্রতি বছর ৩০ জন নারী শিক্ষার্থীর পড়াশোনার খরচ দেবে এফবিসিসিআই। বৃত্তিপাপ্ত শিক্ষার্থীরা এশিয়ার ইউনিভার্সিটি ফর উইমেন এ পড়ার সুযোগ পাবেন।

শনিবার (১০ সেপ্টেম্বর) বিশ্ববিদ্যালয়টির সাথে এ সংক্রান্ত সমঝোতা স্মারক সই করেছে এফবিসিসিআই। এফবিসিসিআই’র পক্ষে সভাপতি মো. জসিম উদ্দিন ও এশিয়ান ইউনিভার্সিটি ফর উইমেন এর পক্ষে ভিসি ড. রুবানা হক ৫ বছর মেয়াদী এই সমঝোতা স্মারকে স্বাক্ষর করেন।

অনুষ্ঠানে এফবিসিসিআই সভাপতি মো. জাসিম উদ্দিন বলেন, সামাজিক দায়িত্বের অংশ হিসেবে তৃণমুলের প্রান্তিক নারী শিক্ষার্থীদের উচ্চশিক্ষার সুযোগ করে দিতে এ উদ্যোগ গ্রহণ করেছে এফবিসিসিআই। এর মাধ্যমে সমাজে নারী ক্ষমতায়ন ও উন্নয়ন প্রক্রিয়ায় নারীদের অংগ্রহণ আরো বাড়বে বলে মনে করেন সভাপতি।

সভাপতি বলেন, ভারতসহ অন্যান্য দেশে শিল্পখাতের সাথে শিক্ষাখাতের নিবিড় সম্পর্ক রয়েছে। বাংলাদেশেও এই সম্পর্ক জোরদার করতে হবে। দক্ষ জনবল তৈরি ও শিল্পের সাথে শিক্ষার সংযোগ বাড়াতে এফবিসিসিআই’র বর্তমান পরিচালনা পর্ষদ বুয়েট ও নর্থ সাউথ এর সাথে চুক্তি করেছে। এছাড়া ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাথেও সহযোগিতামূলক সম্পর্ক প্রতিষ্ঠার বিষয়ে কাজ চলছে।

এশিয়ান ইউনিভার্সিটি ফর উইমেন এর ভিসি ড. রুবানা হক বলেন, প্রত্যন্ত অঞ্চল থেকে হতদরিদ্র নারীরা বিভিন্ন বাধা বিপত্তি কাটিয়ে পড়াশুনা করেন। অন্তর্ভুক্তিকরণকে প্রধান লক্ষ্য হিসেবে কাজ করা জরুরী বলে মনে করেন তিনি। তিনি জানান, ১৯ টি দেশের প্রায় ১ হাজার ৩০০ শিক্ষার্থী বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা করেন।

এর আগে স্বাগত বক্তব্যে এফবিসিসিআইর সিনিয়র সহ-সভাপতি মোস্তফা আজাদ চৌধুরী বাবু এফবিসিসিআইর সাবেক সভাপতি ও ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন সাবেক মেয়র মরহুম আনিসুল হকের শিল্পখাতে ব্যাপক অবদানের কথা স্মরণ করে বলেন, বিভিন্ন জেলা চেম্বার ও অসোসিয়েশনের অবকাঠামোগত উন্নয়নে তিনি যে ভূমিকা রেখেছেন তা ব্যবসায়ীরা সারাজীবন মনে রাখবেন। বৃত্তি প্রদানের ক্ষেত্রে কুড়িগ্রামের দরিদ্র শিক্ষার্থীদের প্রাধান্য দিতে আহ্বান জানান সিনিয়র সহ-সভাপতি। ব্যক্তিগতভাবে ৫ জন শিক্ষার্থীর পড়ালেখার খরচ দেয়ার প্রতিশ্রুতি দেন তিনি।

এশিয়ান ইউনিভার্সিটি ফর উইমেন এর প্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা কামাল আহমেদ বলেন, দেশের অর্ধেক জনগোষ্ঠী নারী। তাদেরকে পেছনে রেখে দেশ এগোতে পারবেনা। শিক্ষার মানোন্নয়ন ও উচ্চশিক্ষাকে সার্বজনীন করাকে বড় চ্যালেঞ্জ হিসেবে মনে করেন কামাল আহমেদ।

অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন এফবিসিসিআইর সহ-সভাপতি মো. আমিন হেলালী, সালাউদ্দিন আলমগীর, মো. হাবীব উল্লাহ ডন, এম এ রাজ্জাক খান রাজ, পরিচালকবৃন্দ ও মহাসচিব মোহাম্মদ মাহফুজুল হক প্রমুখ।