ঢাবি ছাত্রী পরিচয়ে করতেন চুরি, অবশেষে হাতেনাতে ধরা


DU Correspondent | Published: 2024-06-02 09:23:50 BdST | Updated: 2024-07-15 03:02:54 BdST

 

নাম জিনিয়া চৌধুরী। পরিচয় দেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের শিক্ষার্থী হিসেবে। এই পরিচয় দিয়েই শিক্ষার্থীদের টাকা, মোবাইল, ভ্যানিটি ব্যাগসহ অন্যান্য মূল্যবান জিনিসপত্র চুরি করতেন। অবশেষে শনিবার ধরা পড়েছেন তিনি।

শনিবার (০১ জুন) দুপুর ১২ টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসি ক্যাফেটেরিয়ার সামনে চুরির সময় হাতেনাতে ধরা পড়েন জিনিয়া।

জানা গেছে, জিনিয়ার বাড়ি চট্টগ্রামে। হালিশহরের ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল এন্ড কলেজে পড়াশোনা করেছেন। বাড়ি থেকে দু'মাস আগে পালিয়ে চলে আসেন ঢাকায়। এরপর খুঁটি গাড়েন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে। নিজেকে পরিচয় দেন দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী হিসেবে। এই পরিচয়ে বিভিন্ন সময় বিভিন্নভাবে শিক্ষার্থীর ব্যাগ, মোবাইল চুরি করেছেন। আজ শনিবার টিএসসির ক্যাফেটেরিয়ার সামনে চুরির সময় হাতেনাতে ধরা পড়েন তিনি। পরে শিক্ষার্থীরা তাকে প্রক্টরিয়াল টিমের কাছে তুলে দেওয়া হয়।

বাংলা বিভাগের শিক্ষার্থী সাহাদাত হোসেন বলেন, গত ২৩ মে আমার স্ত্রীর ব্যাগ থেকে দেড় হাজার টাকা চুরি করেছে জিনিয়া। মেয়েদের ওয়াশরুমে সে একবার প্রবেশ করার পর ২ মিনিটে আর কাউকে ঢুকতে দেখা যায়নি। তবে তাকে জিজ্ঞেস করা হলে সে ক্যাম্পাসের পরিচয় দেওয়ায় তাকে খুব বেশি জোর করে চেক করতে পারিনি।

ঢাবির একাউন্টিং এন্ড ইনফরমেশন সিস্টেমস বিভাগে এক শিক্ষার্থী বলেন, জিনিয়া টিএসসিতে মেয়েদের ওয়াশরুমে যায় এবং সুযোগ পেলে ছাত্রীদের ব্যাগ থেকে চুরি করে। এছাড়া ক্যাম্পাসের জার্নালিজম বিভাগের ২১-২২ সেশনের ছাত্রী এবং রোকেয়া হলের আবাসিক ছাত্রী হিসেবে পরিচয় দিয়ে মেয়েদের সাথে বন্ধুত্ব করে। একপর্যায়ে তাদের বাসায় গিয়ে চুরি করত।

এ বিষয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. মাকসুদুর রহমান বলেন, এ বিষয়ে আমাকে কিছু জানানো হয় নি, আমি অবগত নই। অভিযুক্তকে প্রোক্টরের হাতে তুলে দেওয়ার নামে শিক্ষার্থীরা বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভুল তথ্য ছড়িয়েছে।